পিডিএফ কিভাবে বানাবো – ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

কখনো কখনো কোনো important ডকুমেন্টস কাউকে পাঠাতে গেলে পিডিএফ ফাইল করার দরকার পড়ে। কারণ আমরা জানি কোন ডকুমেন্ট পিডিএফ ফাইলে থাকলে তার protection বেশি থাকে। যদি আপনিও কোন ফাইল বা ডকুমেন্ট পিডিএফ ফাইল এ বানাতে চান, তাহলে আজকের আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাকে ওয়ার্ড থেকে পিডিএফ বানানো সম্পর্কে ইনফরমেশন দেওয়া হবে।

আমরা জানি বর্তমান যুগের বেশিরভাগই জিনিসই ডিজিটাল হয়ে গেছে। মোবাইল এবং কম্পিউটার মানুষের কাজগুলি অনেক সহজ এবং সরল করে দিয়েছে। যেখানে ভিডিও কলের মাধ্যমে অন্যকে দেখা, অনলাইনে কেনাকাটা করা, ম্যাপের সাহায্যে কোন জায়গায় যাওয়া এই সবকিছুই এখন মোবাইল দিয়ে সম্ভব। তাই আমরা আজ মোবাইল দিয়ে pdf তৈরি কিভাবে করা যায় সেটাও জানবো। যার মাধ্যমে আপনি ডিজিটালি কোন ডকুমেন্টস মোবাইলে জমা করে রাখতে পারবেন বা অন্যকে পাঠাতে পারবেন।

পিডিএফ কি বা কাকে বলে

পিডিএফ হলো এক ধরনের ফাইল ফরম্যাট। কোন ছবি, ডকুমেন্টস এবং ফাইল কে, ঠিকভাবে পড়ার জন্য পিডিএফ ফাইল বানানো হয়। পিডিএফ এর পুরো কথা হল পোর্টেবল ডকুমেন্ট ফাইল (Portable Document File)। যেখানে পোর্টেবল ডকুমেন্ট মানে হলো এমন কিছু ডকুমেন্ট যেগুলি কোন ইউজার খুব সহজেই পড়তে পারে। এবং যেহেতু পোর্টেবল ডকুমেন্ট এর নির্দিষ্ট ফাইল/ফরম্যাট বানানো হচ্ছে, তাই এই ধরনের ফরমেট গুলিকে পিডিএফ বলা হয়।

তবে পিডিএফ ফাইল পড়ার জন্য ডিভাইসের মধ্যে পিডিএফ রিডার নামক যে কোন একটি সফটওয়্যার বা এপ্লিকেশন ইন্সটল থাকতে হবে। তা না হলে আপনি কোনো পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করা সত্ত্বেও সে গুলি খুলে দেখতে পারবেন না।

পিডিএফ ফাইল এর সুবিধা ও অসুবিধা

পিডিএফ ফাইল এর সুবিধা হল এটি আপনি যেকোনো কম্পিউটার বা মোবাইলে খুব সহজে অ্যাডোব পিডিএফ রিডার নামক সফটওয়ারের সাহায্যে খুলে দেখতে ও পড়তে পারবেন। এটি খুব কম সাইজের ফাইল হওয়ার জন্য ডিভাইসের জায়গা খুব কম লাগে। এবং তার সাথে সাথে প্রিন্ট আউট এবং ইলেকট্রনিক সিগনেচার এর জন্য পিডিএফ খুবই জনপ্রিয়।

পিডিএফ ফাইলের অসুবিধাগুলি হল এটি একবার তৈরি করার পর, edit করা খুবই কষ্টকর। কোন টেক্সট ফাইল পিডিএফ এ কনভার্ট করার পর ওই text গুলি ইমেজে পরিণত হয় তাই এটিকে সহজে এডিট করা যায় না। এবং আপনার ডিভাইসে যদি পিডিএফ রিডার না থাকে, তাহলে আপনি পিডিএফ ফাইলকে খুলে দেখতে পারবেন না।

কম্পিউটারে পিডিএফ কিভাবে বানাবো

কম্পিউটারের সাহায্যে পিডিএফ ফাইল বানানোর জন্য আপনি প্রথমে কম্পিউটারের কোন ব্রাউজার খুলে নিয়ে ILovePDF এই ওয়েবসাইটটি ওপেন করুন।

ওয়েবসাইট খোলার পর আপনার সামনে এই সমস্ত অপশনগুলি দেখানো হবে। চলুন প্রথমেই এই সমস্ত অপশনগুলির কাজ কি সেটা জেনে নিই।

  • Merge PDF – এক বা একাধিক পিডিএফ ফাইলকে জোড়ার জন্য।
  • Split PDF – এক বা একাধিক পিডিএফ ফাইল আলাদা করার জন্য
  • Compress PDF – এক বা একাধিক পিডিএফ ফাইল আলাদা করার জন্য
  • PDF to word – পিডিএফ থেকে ওয়ার্ড ফরম্যাটে কনভার্ট করার জন্য
  • PDF to PowerPoint – পিডিএফ থেকে পাওয়ারপয়েন্ট বানানোর জন্য
  • Pdf to excel – পিডিএফ ফাইল থেকে এক্সেল ফাইলে কনভার্ট করার জন্য
  • Word to PDF – ওয়ার্ড ফাইল থেকে পিডিএফ ফাইল বানানোর জন্য
  • PowerPoint to PDF – পাওয়ার পয়েন্ট ফাইলকে পিডিএফ বানানোর জন্য
  • Excel to PDF – এক্সেল ফাইলকে পিডিএফ বানানোর জন্য
  • Edit PDF – কোন পিডিএফ ফাইলকে এডিট করার জন্য
  • Pdf to jpg – পিডিএফ ফাইলকে জেপিজি ফরমেটে আনার জন্য
  • JPG to PDF – ছবি থেকে পিডিএফ বানানোর জন্য
বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

যেহেতু আমরা কোন ডকুমেন্টস কে পিডিএফ ফাইল বানাতে চাই তাই আমরা ‘Word to PDF‘ অপশনটি বেছে নেব। আপনিও যদি কোনো টেক্সট ফাইল কে পিডিএফ বানাতে চান তাহলে এই অপশনটির উপর ক্লিক করুন।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

ওয়ার্ড থেকে পিডিএফ (word to pdf) অপশনটিতে ক্লিক করার সাথে সাথে এরকম একটি পেজ খুলে যাবে। এখান থেকে Select WORD files অপশনটির ওপর ক্লিক করে আপনি যে ফাইলটি পিডিএফ বানাতে চান, সেই ফাইলটি গ্যালারি থেকে তুলে নিন।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

ফাইল টি বেছে নেওয়ার পর আপনার সামনে Convert to PDF নামক একটি অপশন আসবে।আপনার ফাইলটি পিডিএফ ফাইলে কনভার্ট করার জন্য এই অপশনটিতে হাত দিন।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

অপশনটিতে ক্লিক করার সাথে সাথে ওয়াড ফাইল টি পিডিএফ এ কনভার্ট হওয়া শুরু হয়ে যাবে।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

কনভার্ট হওয়া সম্পূর্ণ হলে Download PDF অপশনে ক্লিক করে পিডিএফ ফাইলটি ডাউনলোড করে নিন। ফাইলটি ডাউনলোড হয়ে গেলে ফাইলটি খুলে দেখে নিতে পারেন যে, আপনার আগের ওয়ার্ড ফাইল টি বর্তমানে পিডিএফ ফাইলে পরিবর্তিত হয়েছে। এইরকম ভাবে আপনি যত খুশি ফাইল, পিডিএফ ফরম্যাটে কনভার্ট করে নিতে পারেন।

আশা করি আপনারা জেনে গেছেন ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম গুলি কি। এখন আমরা জানবো মোবাইল দিয়ে pdf তৈরি কিভাবে করতে হয়।

মোবাইল দিয়ে pdf তৈরি কিভাবে করবেন?

মোবাইলের সাহায্যে পিডিএফ তৈরি করার জন্য আপনাকে প্রথমে একটি পিডিএফ বানানোর অ্যাপ্লিকেশন প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে হবে। এই অ্যাপ্লিকেশনের সাহায্যে ছবি থেকে পিডিএফ এবং ওয়ার্ড থেকে পিডিএফ এই দুই ধরনের জিনিসই করা যায়।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

এজন্য আপনি প্লে স্টোরে গিয়ে ‘PDF Maker‘ নামক এপ্লিকেশনটি ইন্সটল করে নিন। এপ্লিকেশনটি ইন্সটল কমপ্লিট হয়ে গেলে অ্যাপ্লিকেশনটি খুলে ফেলুন।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

অ্যাপ্লিকেশন টি খোলার সাথে সাথে আপনার সামনে এরকম দুটি অপশন আসবে।

  1. Photo to PDF – ছবি থেকে পিডিএফ
  2. Doc to PDF – ওয়ার্ড থেকে পিডিএফ

যেহেতু আমি ডকুমেন্টকে পিডিএফ ফরম্যাটে পরিবর্তন করব আমি দ্বিতীয় অপশনটি বেছে নিচ্ছি। যদি আপনারা ছবি থেকে ভিডিও বানাতে চান তাহলে প্রথম অপশনটি নিতে পারেন।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

Doc to PDF অপশনটিতে ক্লিক করার পর আপনার সামনে এরকম একটি পেজ খুলে যাবে। যেখানে Select Doc File অপশনটি উপর ক্লিক করে আপনি যে ডকুমেন্টসটি পিডিএফ ফাইলে পরিবর্তন করতে চান সেটি গ্যালারি থেকে বেছে নিন। বেছে নেওয়া হয়ে গেলে Make PDF অপশনটি প্রেস করুন।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

তারপর পিডিএফ ফাইলটির কোন নাম দিয়ে ফাইলটি ডাউনলোড করে নিন। এরকম ভাবে আপনি আপনার মোবাইলের সাহায্যে পিডিএফ ফাইল বানাতে পারেন।

PDF ফাইল কিভাবে দেখব

যদি আপনি কোন পিডিএফ ফাইল আপনার ডিভাইসে দেখতে চান তাহলে Adobe Reader অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার ডিভাইসে ইন্সটল করুন।এই অ্যাপ্লিকেশন বা সফটওয়্যারটির সাহায্যে আপনি যে কোন পিডিএফ ফাইল দেখতে ও পড়তে পারবেন। এই অ্যাপ্লিকেশনের সাহায্যে পিডিএফ ফাইল দেখার জন্য প্রথমে অ্যাপ্লিকেশনটি খুলে নিয়ে যে ফাইলটি দেখতে চান সেটিকে বেছে নিন।

তাহলে আমরা মোবাইল এবং কম্পিউটারের সাহায্যে পিডিএফ ফাইল কিভাবে তৈরি করতে হয় এবং দেখতে হয় জেনে গিয়েছি। এবার আমরা জানবো কোন পিডিএফ ফাইল গুগোল থেকে কিভাবে ডাউনলোড করতে হয়।

কিভাবে পিডিএফ ফাইল এডিট করা যায়

কোন পিডিএফ ফাইল এডিট করার জন্য আপনি কোন ব্রাউজার খুলে নিয়ে DocFly ওয়েব সাইটটিতে যান।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

তারপর সেখান থেকে Click to Upload your File উপর ক্লিক করে আপনি যে ফাইলটি এডিট করতে যান সেটি গ্যালারি থেকে নির্বাচন করুন।

বানাবো - ওয়ার্ড ফাইলকে পিডিএফ করার নিয়ম

তারপর তিন নম্বরের Edit অপশনে গিয়ে, একদম নিচে থেকে নির্দিষ্ট ফাইলটি বেছে নিয়ে, Edit PDF অপশন প্রেস করুন। Edit পিডিএফ অপশনে ক্লিক করার পর নির্দিষ্ট পিডিএফ ফাইল এডিট করার সমস্ত tools গুলি এসে যাবে। পিডিএফ ফাইলটি এডিট করা কমপ্লিট হলে Export অপশন এর সাহায্যে ফাইলটি ডাউনলোড করে নিন।

পিডিএফ কিভাবে ডাউনলোড করব

কখনো কখনো কোন ই-বুক পড়ার জন্য আমাদের পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করবার দরকার পড়ে। যদি কোনো পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড করতে চান তাহলে কোন ব্রাউজারের সাহায্যে গুগোল এ গিয়ে, কোন কিছু লিখে .pdf ফরম্যাট টি দিয়ে দিন। তারপর সার্চ করুন।

উদাহরণস্বরূপ: আমি যদি এলাহাবাদ ব্যাংক এর কোন ফর্ম ডাউনলোড করতে চাই তাহলে আমি এইরকম ভাবে সার্চ দেবো।

Allahabad bank account opening form .pdf

আবার যদি কোন ই-বুক ডাউনলোড করতে চাই তাহলে এরকম ভাবে লিখব।

রিচ ড্যাড পুওর ড্যাড .pdf

সোজা কথায় মানে হল আপনি যে জিনিসটির পিডিএফ ডাউনলোড করতে চান সেটি গুগোল এ সার্চ দিয়ে পিডিএফ এর ফরমেট (.pdf) টি দিয়ে দিন।

নতুবা আপনি এরকম ভাবে লিখেও সার্চ দিতে পারেন।

Allahabad bank account opening form pdf download

রিচ ড্যাড পুওর ড্যাড download pdf

উপসংহার

আশাকরি কম্পিউটার এবং মোবাইল দিয়ে পিডিএফ কিভাবে তৈরি করতে হয় এবং কিভাবে এডিট করতে হয় আপনি ভালভাবে বুঝতে পেরেছেন। যদি আপনার কোন ডকুমেন্ট পিডিএফ বানাতে চান তাহলে উপরের ইনফরমেশন গুলো ভালোভাবে বুঝে নিয়ে পিডিএফ ফাইল বানাতে পারেন। আর এই আর্টিকেলটি সম্পর্কে যদি কোন প্রশ্ন থাকে আমাদের কমেন্ট করে জানাতে পারেন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

শেয়ার করতে চান!
  •  
  •  
  •  
  •  

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment