WWW কাকে বলে | WWW কত সালে আবিষ্কৃত হয় | WWW এর পূর্ণরূপ কি?

ইন্টারনেট ব্যাবহার করার সময় WWW এর নাম বেশিরভাগ সময় শুনে থাকবেন। এবং এর ব্যবহারও করে থাকবেন। যার ব্যাবহার কোনো ওয়েবসাইট বা URL এর আগে করা হয়।

আজকের এই আর্টিকেল থেকে আমরা WWW সম্পর্কে বিস্তারত জানবো। যেখান থেকে আপনি WWW কাকে বলে, WWW এর জনক কে, WWW এর কাজ কি, WWW এর পুরো কথা কি – এই সমস্ত বিষয়ে ইনফরমেশন পাবেন।

যদি আপনিও এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর জানতে চান তাহলে আর্টিকেলটা পড়া শুরু করুন।

WWW কি?

WWW এর পূর্ণরূপ হল World Wide Web। বিভিন্ন ধরনের তথ্য সংগ্রহ করার জন্য এর ব্যবহার করা হয়।

এর মাধ্যমে বিভিন্ন ওয়েবসাইটের বিশেষ নাম দেওয়া যায়। যেটাকে আমরা ইউ আর এল নামে চিনে থাকি। ইন্টারনেটে বিভিন্ন ওয়েব সাইটের বিভিন্ন নাম হয়ে থাকে, শুধুমাত্র WWW এর কারনেই। এবং এই সুবিধার কারণে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটকে নির্দিষ্ট ইউ আর এল এর মাধ্যমে খুব সহজে খুঁজে পাওয়া যায়।

সোজা ভাষায় বলতে গেলে,

WWW হলো public webpages এর একটি interconnected system। যার মাধ্যমে যে কোনো পাবলিক ওয়েবপেজকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে অ্যাক্সেস করা যায়।

ইন্টারনেটের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন স্টোর করার জন্য এটি হলো একটি Central Hub।

পৃথিবীর সমস্ত কম্পিউটার ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের মাধ্যমেই কানেক্ট থাকে।

WWW এর পূর্ণরূপ কি?

WWW এর পুরো কথা কি – WWW এর পূর্ণরূপ হল World Wide Web। এর বাংলা অর্থ করলে দাঁড়ায় বিশ্বব্যাপী কম্পিউটার নেটওয়ার্ক। তবে এটি কে বাংলাতেও ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব ই বলা হয়।

WWW বলতে কী বোঝায়?

একটি নির্দিষ্ট ওয়েবপেজ অ্যাক্সেস করার জন্য এবং চালানোর জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রটোকল হয়ে থাকে। এই সকল ওয়েব পেজকে খোলার জন্য ওয়েব ব্রাউজার ব্যবহার করা হয়।

এটি একটি তথ্য স্থান যেখানে ওয়েবসাইট সম্পর্কিত সমস্ত নথি এবং ওয়েব Page গুলি URL (Uniform Resource Locator) দ্বারা চিহ্নিত করা হয়। এখানে সমস্ত নথি Internet এর মাধ্যমে Access করা হয় যা হাইপারটেক্সট লিঙ্ক দ্বারা সংযুক্ত করা হয়।

অন্য কথায় বলতে গেলে , World Wide Web একটি স্টোরেজ সিস্টেম যেখানে বিশ্বের সমস্ত ওয়েবসাইট স্টোর সংরক্ষণ করা হয়।

WWW কাকে বলে?

ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব, ওয়েব নামেও পরিচিত। WWW হল ওয়েবসাইট বা ওয়েব পৃষ্ঠাগুলির একটি সংগ্রহ যা একটি ওয়েব সার্ভারে সংরক্ষণ করা হয় এবং যেগুলি ইন্টারনেটের মাধ্যমে স্থানীয় কম্পিউটারের সাথে সংযুক্ত থাকে।

এই ওয়েবসাইটগুলিতে পাঠ্য পৃষ্ঠা, ডিজিটাল চিত্র, অডিও, ভিডিও ইত্যাদি রয়েছে। এটি ব্যবহারকারীদের কম্পিউটার, ল্যাপটপ, সেল ফোন ইত্যাদির মতো ডিভাইসগুলি ব্যবহার করে, ইন্টারনেটের মাধ্যমে, বিশ্বের যেকোনো প্রান্ত থেকে সাইটগুলির সামগ্রী অ্যাক্সেস করতে দেয়৷

WWW, ইন্টারনেটের সাথে আপনার ডিভাইসে পাঠ্য এবং মিডিয়া পুনরুদ্ধার এবং প্রদর্শন সক্ষম করে।

WWW ওয়েব ব্যবহারকারীদের ইন্টারনেটে তথ্য গ্রহণ ও বিনিময় করার জন্য একটি যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম প্রদান করে।

WWW-তে একটি ওয়েব পেজ থেকে অন্য ওয়েব পেজে যাওয়ার জন্য হাইপারটেক্সট লিঙ্কের একটি ওয়েব পেজ অনুসরণ করা হয়। একটি ওয়েব পৃষ্ঠা অ্যাক্সেস করতে আপনার একটি ব্রাউজার প্রয়োজন যা আপনার কম্পিউটারে ইনস্টল করা আবশ্যক।

WWW কে আবিষ্কার করেন?

1989 সালে, ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব ব্রিটিশ বিজ্ঞানী টিম বার্নার্স-লি আবিষ্কার করেছিলেন। এইজন্য টিম বার্নার্স-লি কেই, WWW এর জনক বলা হয়।

WWW কত সালে আবিষ্কৃত হয়?

1989 সালে WWW আবিষ্কৃত হয়। টিম বার্নার্স-লি CERN-এ কাজ করতেন। তার 1700 টিরও বেশি বিজ্ঞানীর একটি দল ছিল, যারা প্রায় 100টি দেশে ছিলেন।

এই সমস্ত বিজ্ঞানীদের একে অপরের কাছে তাদের তথ্য জানানোর জন্য একটি মাধ্যম প্রয়োজন ছিল। এটি মাথায় রেখে, ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের জন্ম হয়েছিল।

WWW এর কাজ কি?

বিভিন্ন ধরনের তথ্য সংগ্রহ করার জন্য এর ব্যবহার করা হয়। WWW হল ওয়েবসাইট বা ওয়েব পৃষ্ঠাগুলির একটি সংগ্রহ যা একটি ওয়েব সার্ভারে সংরক্ষণ করা হয়।

এবং WWW ওয়েব ব্যবহারকারীদের ইন্টারনেটে তথ্য গ্রহণ ও বিনিময় করার জন্য একটি যোগাযোগ প্ল্যাটফর্ম প্রদান করে।

যার মাধ্যমে পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যে কোন ব্যক্তি কম্পিউটারের মাধ্যমে ইন্টারনেট অ্যাকসেস করতে পারে।

উপসংহার

আশা করি আজকের এই আর্টিকেল থেকে WWW কাকে বলে | WWW কত সালে আবিষ্কৃত হয় | WWW এর পূর্ণরূপ কি এই সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। যদি WWW বুঝতে এখনও কোনো অসুবিধা হয় তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment