গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় – সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা কোনটি

আজকের আর্টিকেলে আমরা গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় এবং সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা কোনটি এই দুটি প্রশ্নের উত্তর জানবো। যদি আপনি ব্যবসা করতে আগ্রহী হন তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়ে নেওয়ার পর আপনার মন পছন্দের যে কোন ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

যে কোন ব্যবসা করা মানে হল স্বাধীনতা বজায় রাখা। যেখানে আপনাকে কারো আন্ডারে কাজ করতে হবে না এবং কোনো মালিকের কথা শুনতে হবে না। তাই যদি আপনি ব্যবসা করতে আগ্রহী হন তাহলে বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা গুলি দেখে নিন।

এবং যদি আপনি গ্রামের অধিবাসী হয়ে থাকেন তাহলে এই সমস্ত ব্যবসা গুলি, আপনি আপনার গ্রামের মধ্যে করতে পারেন। তাই চলুন জেনে নেওয়া যাক গ্রামে কি ব্যবসা করা যায়।

বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা

এখানে যে সমস্ত ব্যবসা গুলি সম্পর্কে আলোচনা করা হল এগুলি হল আজকের দিনের সব থেকে লাভজনক ব্যবসা। তাই এগুলি একটি একটি করে মনোযোগ দিয়ে পড়ে নিন। এবং এরপর আপনার মন পছন্দের যে কোন ব্যবসা বেছে নিয়ে সেটি শুরু করতে পারেন।

১. সবজির পাইকারি ব্যবসা

আজকাল খাবার সবচেয়ে কেনার জন্য আমাদের শহরের বিভিন্ন প্রান্তে যেতে হয়। এইজন্য আপনি গ্রামের মানুষের সুবিধার জন্য বিভিন্ন সবজির আমদানি করে সেগুলি, একটি ছোট দোকান এর মাধ্যমে বিক্রি করতে পারেন। যার ফলে আপনি খুবই লাভবান হবেন।

কারণ কাঁচা আনারস এবং সবজির চাহিদা সর্বদা লেগেই থাকে এবং এটি নিত্যপ্রয়োজনীয় একটি দ্রব্য। তাই আপনি বিভিন্ন চাকরির সাথে যোগাযোগ করে তাদের থেকে কাঁচা ফসল কিনে নিয়ে সেগুলি অল্প লাভে বিক্রি করতে পারেন।

২. গরুর ফার্ম তৈরি

দুধের চাহিদা সর্বদা লেগেই থাকে। তাই আপনি একটি গরুর ফার্ম তৈরি করে সেখানে, সেই গরুগুলিকে পরিচর্যার মাধ্যমে রেখে, তাদের দুধ নিয়ে বিভিন্ন প্রান্তে বিক্রি করতে পারেন।

এর জন্য আপনি বড় বড় মিষ্টির দোকান এর সাথে যোগাযোগ করে আপনার দুধ বিক্রি করতে পারেন। এর সাথে সাথে বাড়িতে ছানা, মাখন, ঘি তৈরি করে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে দিতে পারেন। যেটি বর্তমানের সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসার মধ্যে একটি।

৩. মোবাইল রিপেয়ারিং সার্ভিস

মোবাইলে চাহিদা দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে। এবং তার সাথে সাথে অনেক মোবাইল সমস্যার কারণে রিপেয়ার করার প্রয়োজন পড়ে। তাই যদি আপনি আপনার গ্রামে একটি মোবাইল রিপেয়ারিং সার্ভিস এর দোকান করেন তাহলে সেই দোকানটি খুব তাড়াতাড়ি প্রচুর কাস্টমার গড়ে তুলতে পারবে।

এবং যদি আপনি অল্প লাভে এবং মানুষের মধ্যে বিশ্বাস বাড়িয়ে দোকানটি চালাতে পারেন তাহলে আপনি অবশ্যই লাভবান হবেন।

৪. মাস্ক তৈরির ব্যাবসা

বর্তমানের এই পরিস্থিতিতে প্রত্যেকটি মানুষের মাস্ক এর প্রয়োজন হচ্ছে। এবং এটির চাহিদা হঠাৎ করে বেড়ে যাওয়ার কারণে সাপ্লাই অনেক কম।

তাই আপনি যদি বর্তমানে একটি মাক্স তৈরীর মেশিন কিনে, মাক্স তৈরি করতে পারেন তাহলে এটিও হতে পারে একটি লাভজনক ব্যবসা।

এর জন্য আপনি প্রচুর পরিমাণে মাক্স তৈরি করে বিভিন্ন ওষুধের দোকানের সাথে যোগাযোগ করে আপনার ম্যাক্স গুলি ডেলিভার করতে পারেন।

৫. মাছ ও মাংসের দোকান

মাছ ও মাংসের চাহিদা সর্বদা লেগেই থাকে। তাই আপনি যদি মাছ ও মাংসের দোকান তৈরি করতে পারেন তাহলে এর থেকে বেশি প্রফিট হয়তো আপনি গ্রামে কোথাও পাবেন না।

যদি আপনি মাছ ও মাংসের ব্যবসা কিভাবে করতে হয় এটি শিখে নিতে পারেন এবং এরপর গ্রামের মধ্যে একটি দোকান তৈরি করতে পারেন, তাহলে আপনার খরিদ্দার এর অভাব হবে না।

এবং এর সাথে যদি আপনি বিভিন্ন বাড়িতে হোম ডেলিভারি করতে পারেন তাহলে এই করোনা পরিস্থিতিতে, ডেলিভারী চার্জ হিসেবে এক্সট্রা টাকাও উপার্জন করতে পারবেন।

৬. গ্যাস ও জ্বালানি কাঠের ব্যবসা

গ্যাস ও জ্বালানি হলো এমন দুটো জিনিস যেগুলোর প্রয়োজন কোনদিনও শেষ হবেনা। রান্না করার জন্য এই দুটো জিনিস অবশ্যই প্রয়োজন হয়। তাই যদি আপনি এই দুটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন তাহলে অনেক বেশি টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

এবং অল্প কিছুদিনের মধ্যেই আপনি অনেক বেশি খরিদ্দার জোগাড় করে নিতে পারবেন।

অনলাইনে কি কি ব্যবসা করা যায়

আজকের দিনে বেশিরভাগ মানুষ অনলাইন ব্যবসার প্রতি মনোযোগ দিচ্ছে। অনলাইনে ব্যবসা করার জন্য গ্রাম বা শহর বলে কিছু হয়না। যদি আপনার কাছে ইন্টারনেট থাকে তাহলে আপনি বাড়িতে বসেই অনলাইন ব্যবসা শুরু করতে পারেন। বর্তমানে অনলাইনে যে সমস্ত ব্যবসা গুলি করে প্রচুর টাকা উপার্জন করা যায় সেগুলি দেখে নেন।

১. অনলাইন কোচিং সেন্টার

বর্তমানের পরিস্থিতিতে অনেক ছাত্রছাত্রী বাড়িতে বসে পড়াশোনা করতে পছন্দ করছে। তাই যদি আপনি একটি কোচিং সেন্টার খুলে নিয়ে, বিভিন্ন ছাত্রদের শিক্ষা দিতে পারেন তাহলে আপনার ব্যবসা খুবই অগ্রসর হবে।

এর জন্য আপনি প্রত্যেকটি সাবজেক্টে বিশেষ বিশেষ শিক্ষক কে নিযুক্ত করে একটি কোচিং সেন্টার খুলতে পারেন। এবং বিভিন্ন ভিডিও অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষকতা করতে পারেন।

২. ইউটিউব চ্যানেল

বর্তমানে ইউটিউব কে ব্যবসা হিসেবে নেওয়া হচ্ছে। তাই বিভিন্ন বড় বড় গ্রুপ আজকাল ইউটিউবে ভিডিও পাবলিশ করেছে।

যদি আপনার মধ্যে কোন ট্যালেন্ট থাকে তাহলে আপনিও একটি ইউটিউব চ্যানেল বানিয়ে সেখানে প্রয়োজনীয় এবং গুরুত্বপূর্ণ ইনফরমেশন গুলো দিতে পারেন। এবং পরবর্তীকালে মানুষ আপনার চ্যানেলের ভিডিও দেখতে আসার সাথে সাথে, বিভিন্ন অ্যাডভার্টাইজমেন্ট এর মাধ্যমে উপার্জন করতে পারেন।

৩. ব্লগিং

দেখি আপনি লিখতে ভালোবাসেন তাহলে ব্লগিং হলো আপনার জন্য সবচেয়ে লাভজনক একটি অনলাইন ব্যবসা

আপনি ইন্টারনেটে একটি ব্লগ বানিয়ে সেখানে মূল্যবান ইনফরমেশনের গুলি দিয়ে মানুষকে সাহায্য করতে পারেন। এবং পরবর্তীকালে ব্লগে ভিজিটর আসার সাথে সাথে বিভিন্ন অ্যাডভার্টাইজমেন্ট লাগিয়ে অনলাইন থেকে আয় করতে পারেন।

৪. অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট টিম

আজকের যুগ হলো অ্যাপ্লিকেশনের যুগ। আজকাল বিভিন্ন মানুষ তাদের মোবাইলের মাধ্যমে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে থাকে।

এবং বিভিন্ন সংস্থা যেগুলি অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করে, সেগুলিকে প্রতিনিয়ত ডেভলপ করার প্রয়োজন পড়ে। যদি আপনার কাছে কোন এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট টিম থাকে, তাহলে আপনি বিভিন্ন কোম্পানির থেকে বিভিন্ন অফার গ্রহণ করে, তাদের অ্যাপ্লিকেশনগুলি ডেভলপ করতে পারেন। এবং এর পরিবর্তে একটি মোটা অংকের টাকা আয় করতে পারবেন।

৫. সোশ্যাল ইনফ্লুয়েন্সার

সোশ্যাল ইনফ্লুয়েন্সার মানে হল সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে কোন কিছু প্রোডাক্ট বা সার্ভিস প্রমোট করা। আজকাল মানুষ সব থেকে বেশি সোশ্যাল মিডিয়ায় সময় কাটান।

যদি আপনি কোন সোশ্যাল মিডিয়ার বড় পেজ বা গ্রুপ এর অংশীদার বা মালিক হয়ে থাকেন তাহলে, সোশ্যাল ইনফ্লুয়েন্সের হয়ে বিভিন্ন কোম্পানির প্রোডাক্ট এবং সার্ভিসগুলি আপনার পেজে প্রমোট করতে পারেন।

এর সাথে সাথে আপনি নতুন ইউটিউবার এবং যারা নতুন কোম্পানি তৈরি করেছে তাদের সাথে যোগাযোগ করে আপনার পেজে তাদের অ্যাডভার্টাইজমেন্ট দিতে পারেন। এবং তাদের থেকে মোটা অংকের টাকা লাভ করতে পারেন।

সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা কোনটি

উপরে আমি সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসার একটি লিস্ট দিয়ে দিয়েছি। তবে যদি আপনি সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা কথা বলেন তাহলে আমি দুটি ব্যবসার কথা আপনাদের বলব। প্রথমটি আপনি অনলাইনের মাধ্যমে করতে পারবেন এবং দ্বিতীয়টি অফলাইনের মাধ্যমে।

অনলাইনের মাধ্যমে আজকের দিনের সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা হল সোশ্যাল ইনফ্লুয়েন্সার হওয়া। যার মাধ্যমে আপনি, সোশ্যাল মিডিয়ার কোন গ্রুপ বা পেজ এর মালিক হয়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং কোম্পানির, বিভিন্ন প্রোডাক্ট এবং সার্ভিস প্রমোট করতে পারেন। এবং এর বিনিময়ে ওই কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠানের থেকে মোটা অংকের টাকা চার্জ করতে পারেন।

এবং যদি অফলাইন ব্যবসার কথা বলা হয় তাহলে আজকের দিনের সব থেকে লাভজনক ব্যবসা হলো মাস্ক তৈরি করা। কারন আজকাল সবাই মাক্স ব্যবহার করছে এবং এর সাপ্লাই কম। তাই যদি আপনি মাক্স তৈরি করে মানুষের মাঝে ছড়িয়ে দিতে পারেন তাহলে প্রচুর লাভবান হবেন।

গ্রামে লাভজনক ব্যবসা কোনটি

গ্রামের সব থেকে সহজ এবং লাভজনক ব্যবসা হল গরুর ফার্ম তৈরি করা। যেটি যে কোন মানুষ খুব সহজেই তৈরি করতে পারে। এজন্য আপনি কিছু গরু কিনে নিয়ে সেটির পরিচর্যা করে তার দুধ বিক্রি করে, ব্যবসা শুরু করতে পারেন।

এবং এর সাথে সাথে সেই দুধ থেকে বিভিন্ন ধরনের পনির, ছানা, ঘি, মাখন তৈরি করে বিভিন্ন মিষ্টির দোকানে সাপ্লাই দিতে পারেন।

উপসংহার-

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে গ্রামে কি ব্যবসা করা যায় এবং বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা কোনটি এই সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন। যদি আপনি ব্যবসা শুরু করতে চান তাহলে উপরের দেওয়া ব্যবসা গুলির মধ্যে থেকে যেকোনো একটি বেছে নিয়েছে সেটি সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জেনে নিয়ে তারপর ব্যবসা শুরু করুন। এবং যারা আগে থেকেই এই সমস্ত ব্যবসা গুলি করেছে তাদের সাথে যোগাযোগ করে ব্যবসা সম্পর্কে সম্পূর্ণ জ্ঞান নিন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

শেয়ার করতে চান!
  •  
  •  
  •  
  •  

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment