বিবিএ কি – BBA কি কি বিষয় আছে?

BBA কি – বিবিএ আজকের দিনের জনপ্রিয় কোর্সগুলির মধ্যে একটি। যেটি ক্লাস টুয়েলভ পাস করার পর করা হয়। বিজনেস ম্যানেজমেন্ট সংক্রান্ত জিনিসগুলি এই কোর্সের মধ্যে শেখানো হয়। যদি আপনি ব্যবসা কিভাবে পরিচালনা করতে চান তাহলে আপনিও এই কোর্সটি করতে পারেন।

যদি আপনি BBA করতে চান এবং বিবিএ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান, তাহলে আজকের এই আর্টিকেল থেকে বিবিএ সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয়ে ইনফরমেশন পাবেন।

যেমন – বিবিএ কি, BBA কি কি বিষয় আছে, যোগ্যতা, চাকরি, এডমিশন কিভাবে নেবেন ইত্যাদি। তাই চলুন দেরী না করে এই কোর্সটি সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

বিবিএ কি?

বিবিএর ফুল ফর্ম হলো ব্যাচেলর অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন। এটি একটি গ্রাজুয়েশন বা ব্যাচেলর ডিগ্রী যেটি আপনি ক্লাস টুয়েলভ পাস করার পর করতে পারেন।

কোন ব্যবসা সম্পর্কে বেসিক থেকে এডভান্স শেখার জন্য বিবিএ কোর্স করা হয়। এই কোর্সটি সম্পন্ন করতে তিন বছর সময় লাগে। বিবিএ কোর্সটিতে ছয়টি সেমিস্টার আছে এবং প্রত্যেক বছর দুটি সেমিস্টার হয়ে থাকে। এবং প্রত্যেকটি সেমিস্টার এর সাবজেক্ট আলাদা আলাদা হয়।

এই কোর্সটি কোন বিজনেস সম্পর্কে বিশেষ জ্ঞান রপ্ত করার জন্য এবং নির্দিষ্ট বিজনেসকে, কিভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় এই সমস্ত কিছু শেখানোর জন্য করানো হয়। যার মাধ্যমে আপনি কোন ব্যবসা সফল ভাবে পরিচালনা করা শিখতে পারবেন।

Bba পূর্ণরূপ কি?

BBA এর পূর্ণরূপ হল Bachelor of Business Administration.

যেটির বাংলা অর্থ হলো ব্যবসায় প্রশাসনের স্নাতক।

বিবিএ মানে কি?

BBA বা Bachelor of Business Administration হলো তিন বছরের একটি স্নাতক কোর্স। ব্যবসা কিভাবে পরিচালিত করা হয় bba এর মাধ্যমে সেটি শেখানো হয়। এই কোর্সটির মধ্যে ছয়টি সেমিস্টার রয়েছে।

BBA করার যোগ্যতা

ব্যাচেলর অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন বা BBA হল একটি আন্ডারগ্রাজুয়েট কোর্স। এই কোর্সটি নেওয়ার জন্য আপনাকে ক্লাস টেন এবং টুয়েলভে ৪৫ থেকে ৬০ পার্সেন্ট মার্কস থাকতে হবে। এবং আপনার বয়স সতেরো থেকে 25 বছরের মধ্যে হতে হবে।

এই কোর্সটির সবকটি সাবজেক্ট ইংরেজিতে হওয়ার কারণে, আপনাকে ইংলিশ language সম্পর্কে বিশেষ জ্ঞান রাখতে হবে।

কিছু কিছু কলেজে বিবিএ এডমিশন নেওয়ার জন্য এন্ট্রান্স এক্সাম পাস করতে হয়। এন্ট্রান্স এক্সাম পাস করার পর আপনি যে কোন কলেজ থেকে বিবিএ তে ভর্তি হতে পারেন এবং আপনি ভালো ক্যারিয়ার তৈরি করতে পারেন।

বিবিএ করার সুবিধা

  • ভালো পোস্টে চাকরি পাবেন
  • ব্যবসা পরিচালনা সম্পর্কে বিশেষ দক্ষতা থাকবে
  • খুব সহজে entrepreneur হতে পারবেন
  • বিবিএ কোর্স সম্পন্ন করার পর ব্যবসা সম্পর্কে, আরো দক্ষতা পাওয়ার জন্য মাস্টার অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন বা MBA কোর্স করতে পারবেন
  • Leadership skill শিখতে পারবেন
  • Accounting, marketing ,finance, entrepreneurship, international business ইত্যাদির মধ্যে আপনার ক্যারিয়ার তৈরি করতে পারবেন।

BBA এডমিশন কিভাবে নেবেন?

বিবিএ কোর্সে ভর্তি হওয়ার জন্য আপনি ক্লাস টুয়েলভে পরীক্ষা পাস করে, এন্ট্রান্স এক্সামের জন্য প্রস্তুত হন।

এন্ট্রান্স এক্সাম সম্পন্ন করার পর আপনি আপনার পছন্দমত বিবিএ কলেজ নির্বাচন করুন।

এবং সেখানে গিয়ে আপনার ক্লাস টেন এবং টুয়েলভ এর সার্টিফিকেট জমা দিয়ে এবং এডমিশন ফিস এবং ফরম ফিলাপ করে বিবিএ তে এডমিশন নিন।

বিবিএ fees কেমন?

ভারতের এবং ভারতের বাইরে এমন অনেক কলেজ আছে যেখানে বিবিএ কোর্স করায়। যদি আপনি ভারতের মধ্যে কোন কলেজ থেকে বিবিএ কোর্স করতে চান তাহলে কোর্সের জন্য আপনার খরচ হবে এক থেকে তিন লাখ টাকার মধ্যে। এই খরচ নির্ভর করবে আপনার কলেজের ওপর।

টোটাল যা খরচ হবে সেটি আপনাকে ছটি সেমিস্টার এর মধ্যে ভাগ করে, প্রত্যেকটি সেমিস্টার এর আগে দিতে হবে। এবং এডমিশনের জন্য 10 থেকে কুড়ি হাজার টাকা অগ্রিম দিতে হয়।

এছাড়া যদি আপনি হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করেন তাহলে আপনাকে আরো 1 থেকে 2 লক্ষ টাকা খরচ করতে হবে।

BBA কি কি বিষয় আছে?

বিবিএ এর প্রত্যেকটি সেমিস্টার এর মধ্যে এই সমস্ত বিষয়গুলি শেখানো হয়।

  • Marketing
  • Communication
  • Finance
  • Statistic
  • Accounting
  • Principles of management
  • Business Mathematics
  • Operational research

BBA Salary কত?

বিবিএ কোর্স সম্পন্ন করার পর আপনার বিভিন্ন জায়গায় প্লেসমেন্ট হবে। যেটা আপনি কলেজ এর মাধ্যমে জয়েন করতে পারেন বা নিজের চেষ্টায়।

বিবিএ কোর্স সম্পন্ন করার পর আপনার বার্ষিক স্যালারি হবে বছরে 3 থেকে 5 লক্ষ টাকা। তবে এটি সম্পূর্ণ নির্ভর করবে আপনি কোন সেক্টরে কাজ করছেন তার উপর।

BBA করে কি কি জব পাবেন?

  • HR management
  • Marketing management
  • Banking sector
  • Financial organisation
  • Business consultant
  • Accounting management
  • Export companies
  • Tourism management
  • Entrepreneurship
  • ইত্যাদি।

BBA করার পর কি করবেন?

BBA করার পর বেশিরভাগ স্টুডেন্ট ব্যবসা ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে আরো গভীরভাবে শেখার জন্য মাস্টার অফ বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন বা MBA কোর্স করে থাকে।

যদি আপনি এই কোর্সটি করতে না চান তাহলে BBA করার পর entrepreneur হতে পারেন বা ভালো চাকরি খুঁজতে পারেন।

উপসংহার

আশা করি আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনি বিবিএ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যেখান থেকে আপনার বিবিএ কি এবং বিবিএ তে কি কি বিষয় আছে এই সম্পর্কে ধারণা এসে গেছে। যদি আপনি ব্যবসাকে পরিচালনা করতে চান তাহলে এই কোর্সটি আপনি করতে পারেন। যদি নিজের ব্যবসা শুরু না করতে চান তাহলে ভালো কোন চাকরির জন্য এই কোর্সটি আপনার জন্য উপকারী হতে পারে। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও জানুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment