তালব্য বর্ণ কাকে বলে – তালব্য বর্ণ কোনগুলো?

তালব্য বর্ণ কি কি – বাংলা বর্ণমালায় তালব্য বর্ণ সম্পর্কে অনেকেই জানেন না। এই জন্য আজকের আর্টিকেল থেকে আমরা তালব্য বর্ণ সম্পর্কে বিস্তারিত জানব।

যেখান থেকে আপনারা তালব্য বর্ণ কাকে বলে, তালব্য বর্ণ কোনগুলো এবং তালব্য বর্ণ সংজ্ঞা – এই সম্পর্কে জানতে পারবেন। তাই যদি আপনিও তালব্য বর্ণ সম্পর্কে জানতে আগ্রহী হন তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন।

তালব্য বর্ণ কাকে বলে?

জীভের মাঝের অংশটি, মুখের ভিতরের তালুতে স্পর্শ করে, যেসব বর্ণগুলি উচ্চারণ করা হয় সেগুলিকে তালব্য বর্ণ বলে।

কোন কোন বর্ণ রয়েছে সেগুলিতে জীভ, তালুতে স্পর্শ না করে তার কাছে নিকটবর্তী হয়ে উচ্চারিত হয়। এই বর্ণগুলিও তালব্য বর্ণের মধ্যে পরে।

তালব্য বর্ণ সংজ্ঞা

জীভের মাঝের অংশটি, মুখের ভিতরের তালুতে স্পর্শ করে বা তালুতে স্পর্শ না করে তার কাছে নিকটবর্তী হয়ে, যে সকল বর্ণ গুলি উচ্চারিত হয়, সেগুলিকে তালব্য বর্ণ বলা হয়।

তালব্য বর্ণ কোনগুলো?

বাংলা বর্ণমালায় মোট আটটি তালব্য বর্ণ রয়েছে। এই বর্ণ গুলি উচ্চারণ করার সময় জীভের মাঝের অংশের সাথে মুখের ভিতরের তালুতে স্পর্শ হয় এবং নিকটবর্তী হয়ে উচ্চারিত হয়।

এই আটটি তালব্য বর্ণ হলো –

চ, ছ, জ, ঝ, ঞ, শ, য, য়

উপসংহার

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে তালব্য বর্ণ কাকে বলে, তালব্য বর্ণ কি কি, তালব্য বর্ণ সংজ্ঞা – এই সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে গেছেন। যদি এই আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আমরা আপনাকে অবশ্যই সাহায্য করব। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও জানুন

শেয়ার করতে চান!

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment