কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাবেন – কিভাবে রিংটোন সেট করবো

অনেক সময় আমাদের নিজের নামে রিংটোন বানানোর ইচ্ছা হয়ে থাকে। যখন আমরা নিজেদের মোবাইলে নিজের নামে রিংটোন সেট করে রাখি তখন আমার বন্ধুরা সবাই আমাকে জিজ্ঞেস করে থাকে “এটা কী করে করলি বা আমাকে এরকম করে দে“।

তবে আমাদের মধ্যে অনেকেই জানেনা কিভাবে নিজের নামে রিংটোন তৈরি করতে হয়। যদি আপনি এই ট্রিকটি জেনে যান তাহলে আপনি আপনার বন্ধুদের চমকে দিতে পারবেন। এইজন্য আজকের আর্টিকেলে আমরা কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানানো যায় এই সম্পর্কে রিংটোন বানানোর পদ্ধতি জেনে নেব।

যার মাধ্যমে আপনি আপনার নামের রিংটোন বানিয়ে আপনার মোবাইলে সেট করে রাখতে পারবেন। এবং মোবাইলের মধ্যে কোন ফোন কল এলে আপনার নামের রিংটোন বেজে উঠবে।

যদি আপনিও এই ট্রিকটি সম্পর্কে জানতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন। এখান থেকে আপনি কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাতে হয় এ সম্পর্কে সম্পূর্ণ ভাবে জেনে যাবেন।

নিজের নামে রিংটোন কেন রাখবেন?

যদি আপনি অচেনা কোন মানুষের কাছে যান, তাহলে সবাই আপনার নামটি আপনার মোবাইলের রিংটোন বলার সাথে সাথে জেনে যাবে। যার ফলে অচেনা মানুষ গুলিও চমকে উঠবে। এছাড়া আপনার বন্ধু বান্ধব দের মজা দেওয়ার জন্য আপনি আপনার নিজের নামে রিংটোন তৈরি করতে পারেন। এবং পরবর্তীকালে ওই রিংটোনটি মোবাইলে কলার রিংটোন হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। তাই চলুন এবার জেনে নেওয়া যাক কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানানো যায়

কিভাবে নিজের নামে রিংটোন তৈরি করব

নিজের নামে রিংটোন তৈরি করার জন্য আপনাকে প্রথমে একটি ওয়েবসাইটে যেতে হবে। মোবাইলের কোন ওয়েব ব্রাউজার খুলে নেওয়ার পর আপনি FDMR নামক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করুন। এখান থেকে আপনি সার্চ বক্স এর মাধ্যমে এবং রিংটনে লিস্ট থেকে আপনার নামের রিংটোন খুঁজে পেয়ে যাবেন।

কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাবেন - কিভাবে রিংটোন সেট করবো

ওয়েবসাইটটিতে যাওয়ার পর আপনার সামনে ‘Search Ringtone‘ নামক একটি অপশন আসবে। আপনি, আপনার নামের রিংটোন খোঁজার জন্য এই অপশনটির উপর ক্লিক করুন।

কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাবেন - কিভাবে রিংটোন সেট করবো

এরপর সার্চ বক্সটিতে নিজের নাম লিখে সার্চ অপশনে ক্লিক করুন। উদাহরণ হিসেবে আমি রাহুল নাম দিয়ে সার্চ করলাম।

সার্চ করার পর আপনার সামনে আপনার নামের বিভিন্ন ধরনের রিংটোন চলে আসবে। যেখান থেকে আপনি পছন্দমত যেকোনো রিংটোন ডাউনলোড করতে পারেন। এবং এখানে ডাউনলোড করার আগেই দেখানো হয়েছে আপনার রিংটোনটি কেমন হবে। সুতরাং আপনি কালো ইংরেজি বাক্যগুলি পড়ে নিয়ে আপনার মনের মত নাম রিংটোন ডাউনলোড করতে পারেন।

কিভাবে রিংটোন ডাউনলোড করব

কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাবেন - কিভাবে রিংটোন সেট করবো

নির্দিষ্ট রিংটোন টি বেছে নেওয়ার পর “ক্লিক হেয়ার টু গো টু ডাউনলোড পেজ” এই অপশনটিতে ক্লিক করা মাত্র আপনি রিংটোন ডাউনলোড করতে পারবেন।

কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাবেন - কিভাবে রিংটোন সেট করবো

এরপর আপনাকে এরকম একটি পেজ-এ নিয়ে আসা হবে। যেখানে দেওয়া ডাউনলোড অপশন থেকে আপনি ডাউনলোড পেজে প্রবেশ করতে পারবেন।

কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাবেন - কিভাবে রিংটোন সেট করবো

এরপর গুগল ড্রাইভের এরকম একটি পেজে আপনি চলে আসবেন এবং এখান থেকে তিন ডট অপশনে উপর ক্লিক করা মাত্র ডাউনলোড অপশন পেয়ে যাবেন। ডাউনলোড অপশনে ক্লিক করা মাত্র রিংটোন কি আপনার ডিভাইসে ডাউনলোড হওয়া শুরু হবে।

এরপর আপনি রিংটোন টি চালু করে দেখতে পারেন আপনার মোবাইলের ফোন রিংটোন হিসেবে সেট করবার জন্য। এইভাবে আপনি আপনার নামের যে কোন রিংটোন ডাউনলোড করতে পারেন।

কিভাবে রিংটোন সেট করব

যে রিংটোনটি আপনি ডাউনলোড করেছেন সেটি আপনার মোবাইলের মিউজিক গ্যালারিতে চলে যাবে। আপনি সেখান থেকে set as a caller ringtone অপশনের মাধ্যমে আপনার মোবাইলে রিংটোন সেট করতে পারবেন।

এছাড়া আপনি সেটিং অপশন থেকে প্রোফাইল অপশনে গিয়ে আপনার রিংটোন টি বেছে নিয়ে কলার রিংটোন হিসেবে সেট করতে পারেন।

কিভাবে নিজের নামে রিংটোন পরিবর্তন করবেন

যদি আপনি নিজের নামে রিংটোন পরিবর্তন করতে চান তাহলে FDMR ওয়েবসাইটে গিয়ে, পুনরায় নিজের নামে রিংটোন খুঁজে নিয়ে অন্যান্য রিংটোন গুলি ডাউনলোড করতে পারেন।

এবং মোবাইলের মিউজিক গ্যালারিতে গিয়ে পুরনো নাম রিংটোন টি পরিবর্তন করে, নতুন নাম রিংটোন সেট করতে পারেন। এইভাবে আপনি কতবার চান ততবার নাম রিংটোন পরিবর্তন করতে পারবেন।

নাম রিংটোন বানাতে কত টাকা খরচ করতে হবে

উপরে যে পদ্ধতি বলা হয়েছে সেই ওয়েবসাইটটি একদম ফ্রী। সুতরাং আপনাকে নামে রিংটোন বানানোর জন্য একটি টাকাও দিতে হবে না। আপনি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে FDMR ওয়েবসাইটটি থেকে যতবার চান ততবার বিনামূল্যে রিংটোন বানাতে পারে। এবং আপনার বন্ধুদেরও তাদের নাম অনুযায়ী রিংটোন ডাউনলোড করে তাদের কাছে পৌঁছে দিতে পারেন।

উপসংহার

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে কিভাবে নিজের নামে রিংটোন বানাবেন এই সম্পর্কে সম্পূর্ণ ভাবে জানতে পেরেছেন। যদি এই ট্রিকটি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে আপনার বন্ধুদের জানাতে পারেন। তাছাড়া যদি আপনি আপনার বন্ধুকে চমকে দিতে চান তাহলে প্রথমে তাদের সাথে একটু মজা করে তাদেরকে চমকে দিন। এবং যদি এই আর্টিকেলটি বুঝতে যদি আপনার কোন অসুবিধা হয় তাহলে আমাদের কমেন্ট করে জানাতে পারেন। আর কমেন্টের মাধ্যমে আপনাকে অবশ্যই সাহায্য করব।

আরও পড়ুন

শেয়ার করতে চান!
  •  
  •  
  •  
  •  

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment