ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে – ইনপুট ডিভাইসের নাম কি?

যদি আপনি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ব্যবহার করে থাকেন তাহলে, কম্পিউটারকে ইনপুট বা ইনস্ট্রাকশন দেওয়ার জন্য, আপনি যে সমস্ত ডিভাইস ব্যবহার করেন তাকেই ইনপুট ডিভাইস বলা হয়।

আজকের আর্টিকেলে আমরা ইনপুট ডিভাইস কি, ইনপুট ডিভাইস কোনটি, ইনপুট ডিভাইস এর সংজ্ঞা এবং কাজ, ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে বাংলায় জানবো। যদি আপনিও ইনপুট ডিভাইস সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান, তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়া শুরু করুন।

ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে?

কম্পিউটারের বিভিন্ন ডাটা এবং ইনস্ট্রাকশন দেওয়ার জন্য যে ডিভাইস গুলো ব্যবহার করা হয় সেগুলোকে ইনপুট ডিভাইস বলে।

আমরা সকলেই জানি যে কম্পিউটার বিভিন্ন ধরনের ডাটা এবং ইনস্ট্রাকশন ইউজার এর কাছ থেকে নিয়ে সেগুলো কি প্রসেসিং করে আউটপুট দেয়। এই সমস্ত ডাটা গুলি কম্পিউটারের কাছে পৌঁছানোর জন্য, বিভিন্ন ধরনের ডিভাইস এর প্রয়োজন পড়ে। যে সমস্ত ডিভাইসগুলির সাহায্যে কম্পিউটারকে ইনপুট দেওয়া হয় সেই সমস্ত ডিভাইসগুলি হলো ইনপুট ডিভাইস।

ইনপুট ডিভাইস এর সংজ্ঞা –

কম্পিউটারকে ডাটা এবং ইনস্ট্রাকশন দেওয়ার জন্য যেসকল ডিভাইসগুলির সাহায্য নেওয়া হয়, সেই সকল ডিভাইসকে ইনপুট ডিভাইস বলে।

ইনপুট ডিভাইসের সাহায্যে কম্পিউটার ইনস্ট্রাকশন নিয়ে, ইউজারকে সেই ইন্সট্রাকশন এর ভিত্তিতে আউটপুট দেয়।

৫ টি ইনপুট ডিভাইসের নাম কি কি

  1. Keyboard
  2. Mouse
  3. Scanner
  4. Touchpad
  5. Light pen

এগুলো হলো ইনপুট ডিভাইসের নাম। যদি আপনাকে কেউ ‘৫ টি ইনপুট ডিভাইসের নাম লেখ‘ এই কথাটি বলে তাহলে আপনি এই নামগুলি লিখতে পারেন।

কম্পিউটারের জনপ্রিয় ইনপুট ডিভাইস কি

ইনপুট ডিভাইস অনেক ধরনের আছে। তবে যে সমস্ত ইনপুট ডিভাইসগুলি সবথেকে বেশি ব্যবহৃত হয়, সেগুলি হল – কিবোর্ড, মাউস, স্ক্যানার, লাইটপেন এবং ট্র্যাক বল

এই পাঁচটি ডিভাইস হলো কম্পিউটারের সবথেকে জনপ্রিয় ইনপুট ডিভাইস। কম্পিউটারকে ইনপুট দেয়ার জন্য এই সমস্যা ডিভাইসগুলি বেশি কাজে আসে।

Keyboard (কিবোর্ড)

Keyboard (কিবোর্ড) হল কম্পিউটারের প্রধান ইনপুট ডিভাইস। কিবোর্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন সুইচ এর সাহায্যে কম্পিউটার কে, সব রকমের ইনপুট দেওয়া যায়।

ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে?

কি বোর্ডের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের letter, number এবং symbol থাকে। আলাদা আলাদা ইন্সট্রাকশন এর জন্য আলাদা আলাদা কারেক্টর এবং সিম্বল ব্যবহার করা হয়ে থাকে। কোন জিনিস লিখে কম্পিউটারকে ইনস্ট্রাকশন দিতে কিবোর্ড এর ব্যবহার করা হয়।

Mouse (মাউস)

Mouse ও কম্পিউটারের জনপ্রিয় ইনপুট ডিভাইসের মধ্যে একটি। মাউস এর সাহায্যে, কম্পিউটার মনিটরের কোন নির্দিষ্ট জায়গায় পয়েন্ট করার জন্য কাজে লাগে। এইজন্য এটিকে পয়েন্টার ডিভাইসও বলা হয়ে থাকে।

ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে?

কম্পিউটার স্ক্রিনে কোন কাজ করবার জন্য মাউসের অ্যারো চিহ্ন বা Cursor এর প্রয়োজন হয়। যার সাহায্যে কোন নির্দিষ্ট ফাইল বা ফোল্ডার এর উপরে ক্লিক করা যায়। এবং মাউসের চাকতির সাহায্যে কোন নির্দিষ্ট পেজ এর উপর-নিচে scroll করা সম্ভব হয়।

Light Pen (লাইট পেন)

এটি একটি ইনপুট ডিভাইস। যেটিকে কতকটা pen এর মতো দেখতে। লাইটপেন সাধারণত টাচপ্যাডের মত কাজ করে। কম্পিউটার স্ক্রিনে লাইট পেন এর সাহায্যে কোন কিছু লিখে বা এঁকে, কম্পিউটারকে ইনপুট দেওয়া যায়।

ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে?

সাধারণত, কম্পিউটারে গ্রাফিক্স এবং ফটো বানানোর জন্য লাইট পেন এর ব্যবহার করা হয়।

Scanner (স্ক্যানার)

কোন কাগজপত্র স্ক্যান করার জন্য Scanner এর প্রয়োজন হয়। Scanner, hard copy কে soft copy তে পরিবর্তন করে কম্পিউটার স্ক্রিনে ফুটিয়ে তোলে।

ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে?

কোন ডকুমেন্টস এবং ফটো স্ক্যান করে কম্পিউটার স্ক্রিনে ফুটিয়ে তোলার পর, সেটিকে না লিখে এডিট করা যায়। এইজন্য ইউজারকে দ্বিতীয় বার সেই ডকুমেন্টস, হতে লেখার প্রয়োজন হয় না। এইজন্য স্ক্যানার হলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ইনপুট ডিভাইস।

Trackball (ট্র্যাক বল)

এটিও mouse এর মতোই একটি ইনপুট ডিভাইস। এই ডিভাইসটিও কম্পিউটার স্ক্রিন এ পয়েন্ট হয়ে, বিভিন্ন ইনপুট প্রদান করে। এ ধরনের ডিভাইস গেম খেলার জন্য বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে।

ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে?

এবং মানুষের মতোই এটি কেউ দুটি সুইচ থাকে। যার সাহায্যে লেফট ক্লিক এবং রাইট ক্লিক করা যায়।

ইনপুট ডিভাইস কি কি?

এখানে কিছু ইনপুট ডিভাইসের তালিকা দেওয়া হল। এই সমস্ত ডিভাইসগুলি কম্পিউটারকে ইনপুট বা ইনস্ট্রাকশন দিতে কাজে লাগে।

  • Keyboard
  • Mouse
  • Light pen
  • Scanner
  • Joystick
  • Microphone
  • Graphics tablet
  • Barcode reader
  • Optical character reader
  • Fingerprint scanner
  • 3D scanner
  • Image scanner
  • Magnetic ink
  • Light gun
  • Remote
  • Touchpad
  • Optical mark reader
  • Web camera
  • Trackball
  • Etc.

ইনপুট ডিভাইস এর কাজ কি?

ইনপুট ডিভাইসের সাহায্যে কম্পিউটারে কোন তথ্য বা ডাটা প্রদান করা যায়। যেটার সাহায্যে কম্পিউটারে কোন ডাটা নিয়ে সেটিকে প্রসেসিং করার পর ইউজারকে আউটপুট দেখাতে সক্ষম হয়।

বিভিন্ন ধরনের ইনপুট ডিভাইস এর বিভিন্ন ধরনের কাজ রয়েছে।

যেমন কীবোর্ডের সাহায্যে কোন জিনিস লিখে কম্পিউটারকে ইনপুট দেওয়া যায়। ঠিক তেমনি মাউস এর সাহায্যে পয়েন্ট করে কম্পিউটারকে ইনপুট প্রদান করা হয়। আবার টাচপ্যাডের সাহায্যে, ফিঙ্গারপ্রিন্ট টাচ এর মাধ্যমে কম্পিউটার কে তথ্য দেওয়া হয়।

এরকম বিভিন্ন ধরনের ইনপুট ডিভাইস ব্যবহার করে, বিভিন্ন পদ্ধতিতে কম্পিউটারকে ইনপুট দেওয়া হয়।

ইনপুট ডিভাইস এর ব্যবহার –

কম্পিউটারে বিভিন্ন ধরনের কাজ করবার জন্য ইনপুট ডিভাইস ব্যবহার করা হয়।

কোন কিছু লেখালেখি করা, কোন ডকুমেন্টস জমা করে রাখা, কোন ছবিকে কাস্টমাইজ করা, কোন প্রোগ্রাম তৈরি করা, কোন প্রেজেন্টেশন বানানো, গান বা মনোরঞ্জন করা, ইনফর্মেশন খুঁজে বের করা, এই সমস্ত কিছু কাজ কম্পিউটারে করবার জন্য ইনপুট ডিভাইস এর ব্যবহার করা হয়।

বিভিন্ন ধরনের ইনপুট ডিভাইস, আমাদের বিভিন্ন ধরনের আউটপুট পাওয়ার রাস্তা করে দেয়।

ইনপুট ও আউটপুট ডিভাইস এর মধ্যে পার্থক্য

ইনপুট ডিভাইসের মাধ্যমে আমরা কম্পিউটারে কোন ইনপুট বা ইনস্ট্রাকশন দিতে পারি। আউটপুট ডিভাইসের মাধ্যমে কম্পিউটার আমাদের দেওয়া ইনপুট Data এর ওপর ভিত্তি করে, সেই নির্দিষ্ট ডাটাকে প্রসেসিং করে, আমাদের আউটপুট প্রদর্শন করে।

সুতরাং ইনপুট ডিভাইসের মাধ্যমে কম্পিউটারে ইনপুট দেওয়া যায় এবং আউটপুট ডিভাইসের মাধ্যমে কম্পিউটার থেকে আউটপুট নেওয়া যায়।

সোজা কথায় ইনপুট মানে হলো কম্পিউটারের ইনস্ট্রাকশন দেওয়া এবং আউটপুট মানে হলো কম্পিউটার থেকে ইনস্ট্রাকশন নেওয়া।

প্রথমে কম্পিউটারকে ইনপুট দেওয়া হয়। এবং কম্পিউটার সেই Input Data এর ওপর ভিত্তি করে, সেই ডাটাগুলোকে প্রসেসর ডিভাইসের সাহায্যে প্রসেসিং করে; ইউজারকে আউটপুট দেয়।

ইনপুট ডিভাইস এর উদাহরণ হল Keyboard, Mouse, Scanner এবং আউটপুট ডিভাইস এর উদাহরণ হল Monitor, Printer, Headphone।

উপসংহার:

আশাকরি ওপরের ইনফর্মেশন থেকে ইনপুট ডিভাইস কাকে বলে, ইনপুট ডিভাইসের নাম কি, ইনপুট ডিভাইস এর সংজ্ঞা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি এখন আপনার মনে ইনপুট ডিভাইস সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি, কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আমরা ইনপুট ডিভাইস সম্পর্কে, আপনাকে যাবতীয় প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার অপেক্ষায় থাকবো।

আরও পড়ুন:

শেয়ার করতে চান!
  •  
  •  
  •  
  •  

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment