অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার কাকে বলে ও কত প্রকার

অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার কি – যে কোনো কম্পিউটার দুটি অংশ নিয়ে গঠিত। একটি হলো হার্ডওয়ার এবং অপরটি হল সফটওয়্যার

হার্ডওয়্যার হলো কম্পিউটার এর মধ্যে থাকা সমস্ত ইলেকট্রনিক্স যন্ত্রাংশ যা আমরা দেখতে এবং স্পর্শ করতে পারি। এবং সফ্টওয়্যার হল একটি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজে লেখা একটি নির্দেশনার তালিকা। যেগুলির নির্দেশে কম্পিউটারের হার্ডওয়ার গুলি কাজ করে।

কম্পিউটার, ল্যাপটপ, মোবাইল ইত্যাদিতে যে সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয় সেগুলি দুই ধরনের। যার প্রথমটি সিস্টেম সফটওয়্যার এবং দ্বিতীয়টি অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার।

তবে সিস্টেম সফটওয়্যার এবং অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যারের অধীনে অনেক ধরনের সফটওয়্যার রয়েছে যাদের কাজ আলাদা।

আজ আমরা বিশেষভাবে অ্যাপ্লিকেশন সফ্টওয়্যার সম্পর্কে আলোচনা করতে যাচ্ছি, তাই আপনাকে সম্পূর্ণ নিবন্ধটি মনোযোগ সহকারে পড়ার অনুরোধ করা হচ্ছে।

অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার কি?

অ্যাপ্লিকেশন সফ্টওয়্যার হল এমন সফ্টওয়্যার যা ব্যবহারকারীর একটি নির্দিষ্ট কাজ সম্পূর্ণ করার জন্য তৈরি করা হয়।

যেমন – ওয়ার্ড প্রসেসিং প্রোগ্রাম এর মাধ্যমে একটি পাঠ্য নথি তৈরি করতে, ডেটাবেস পরিচালনার জন্য ডেটাবেস প্রোগ্রাম, মিডিয়া প্লেয়ারের জন্য ভিডিও/অডিও প্লেয়ার ইত্যাদি।

অর্থাৎ, বিভিন্ন ধরণের কাজ সম্পন্ন করার জন্য, অনেক ধরণের প্রোগ্রাম বা সফ্টওয়্যার রয়েছে, একটি নির্দিষ্ট কাজ করতে ব্যবহৃত হয়।

কম্পিউটারে সিস্টেম সফ্টওয়্যারটি পিছনের প্রান্তে কাজ করে এবং অ্যাপ্লিকেশন সফ্টওয়্যারটি সামনের প্রান্তে কাজ করে। অর্থাৎ আমাদের অ্যাপ্লিকেশন সফ্টওয়্যারটি সিস্টেম সফ্টওয়্যারের উপরে চলে। সিস্টেম সফ্টওয়্যার ছাড়া, আমরা অ্যাপ্লিকেশন সফ্টওয়্যার ইনস্টল করতে পারবো না।

অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার কাকে বলে?

কম্পিউটারকে দিয়ে নির্দিষ্ট কাজ করানোর জন্য যে সফটওয়্যার গুলি ব্যবহার করা হয় সেগুলোকে অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার বলা হয়।

সিস্টেম সফটওয়্যার এর ওপর অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার ইন্সটল করে নির্দিষ্ট অ্যাপসটি চালিয়ে কম্পিউটারের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের কাজ করা হয়।

আলাদা আলাদা অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার আলাদা আলাদা কাজের জন্য ব্যবহৃত হয়।

অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর উদাহরণ

  • Microsoft Office
  • Adobe Photoshop
  • Tally
  • VLC Media Player
  • Adobe Premiere
  • Wondarshare Filmora
  • Coral Draw
  • ইত্যাদি।

এছাড়াও, মোবাইল ফোনের সমস্ত অ্যাপগুলিও অ্যাপ্লিকেশন সফ্টওয়্যারের উদাহরণ।

অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার কত প্রকার?

কাজ অনুসারে, অনেক ধরনের অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার রয়েছে, যার মধ্যে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যারের ক্যাটাগরি এখানে উল্লেখ করা হচ্ছে, যেমন –

১. ওয়ার্ড প্রসেসিং সফটওয়্যার

ওয়ার্ড প্রসেসিং সফ্টওয়্যার টাইপিং, ডকুমেন্ট এডিটিং, ফরম্যাটিং এর মত কাজ সম্পাদন করতে ব্যবহৃত হয়। ওয়ার্ড প্রসেসিং সফটওয়্যারের উদাহরণ হল- মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, অ্যাপল ওয়ার্কস

২. স্প্রেডশীট সফ্টওয়্যার

স্প্রেডশীট সফ্টওয়্যার হল একটি প্রোগ্রাম যা রেকর্ড, গণনা এবং সংখ্যাগত বা আর্থিক ডেটা তুলনা করতে ব্যবহৃত হয়। স্প্রেডশীট সফ্টওয়্যারের উদাহরণ হল MS Excel, Libre Office Calc, iWork Numbers ইত্যাদি।

৩. ডাটাবেস ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার

ডেটাবেস ম্যানেজমেন্ট সফ্টওয়্যার ডেটা সংরক্ষণ, ম্যানিপুলেট এবং পরিচালনা করতে ব্যবহৃত হয়। ডাটাবেস ম্যানেজমেন্ট সফ্টওয়্যারের উদাহরণ হল Microsoft Access, FileMaker Pro ইত্যাদি।

৪. Presentation সফ্টওয়্যার

Presentation সফ্টওয়্যার আমাদের পাঠ্য, ছবি, অডিও এবং ভিডিওর সাহায্যে আমাদের ধারণা এবং ধারণাগুলির একটি গ্রাফিক্যাল উপস্থাপনা তৈরি করতে দেয়।

Presentation সফ্টওয়্যারের সাহায্যে, আমরা আমাদের ধারণা বা প্রকল্পকে অন্যদের সামনে উপস্থাপন করতে পারি সুন্দর গ্রাফিকাল উপস্থাপনা তৈরি করে যা স্লাইড শো নামেও পরিচিত। Presentation সফ্টওয়্যারের উদাহরণগুলি হল মাইক্রোসফ্ট পাওয়ারপয়েন্ট, স্লাইডডগ ইত্যাদি।

৫. অ্যাকাউন্টিং সফটওয়্যার

অ্যাকাউন্টিং সফ্টওয়্যার হল এমন সফ্টওয়্যার যা বিভিন্ন ধরণের অ্যাকাউন্টিং এবং আর্থিক কাজগুলি পরিচালনা করে, এটি একটি ব্যবসার আর্থিক ডেটা সঞ্চয় করে এবং ব্যবসায়িক লেনদেন পরিচালনা করতে ব্যবহৃত হয়। অ্যাকাউন্টিং সফটওয়্যারের উদাহরণ হল ট্যালি, ব্যাপার, জেরো অ্যাকাউন্টিং ইত্যাদি।

৬. ডেস্কটপ পাবলিশিং সফটওয়্যার

ডেস্কটপ প্রকাশনা সফ্টওয়্যার (ডিটিপি) নথি তৈরি করতে ব্যবহৃত হয় যেমন চিঠিপত্র, ব্রোশিওর এবং নিউজলেটার। ডেস্কটপ প্রকাশনা সফ্টওয়্যারগুলির উদাহরণ হল অ্যাডোব ইনডিজাইন, অ্যাডোব পেজমেকার, মাইক্রোসফ্ট পাবলিশার ইত্যাদি।

৭. গ্রাফিক্স ডিজাইনিং সফটওয়্যার

গ্রাফিক্স ডিজাইনিং সফ্টওয়্যারটি 2D, 3D ছবি তৈরি করতে এবং বিভিন্ন ফরম্যাটের গ্রাফিক ফাইলগুলিকে সম্পাদনা ও রূপান্তর করতে ব্যবহৃত হয়।

গ্রাফিক ডিজাইনিং সফটওয়্যারের উদাহরণ হল Adobe Illustrator, Adobe Photoshop, Coral Draw, Autocad ইত্যাদি।

৮. মাল্টিমিডিয়া সফটওয়্যার

একটি মাল্টিমিডিয়া প্রোগ্রাম বা সফ্টওয়্যার হল সফ্টওয়্যার যা অডিও ভিডিও ফাইলগুলি প্লে বা রেকর্ড করার সুবিধা প্রদান করে।

মাল্টিমিডিয়া সফটওয়্যারের উদাহরণ হল Windows Media Player, VLC মিডিয়া প্লেয়ার, Winamp, Media Monkey, iTunes ইত্যাদি।

অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর প্রয়োজনীয়তা

এপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর মাধ্যমে কম্পিউটারের বিভিন্ন ধরনের কাজ করা হয়। ভিন্ন ভিন্ন কাজের জন্য ভিন্ন ভিন্ন এপ্লিকেশন সফটওয়্যার ব্যবহৃত হয়।

যদি কম্পিউটারের মধ্যে অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার না থাকে তাহলে আপনি কম্পিউটারের মধ্যে কোনো কাজ করতে পারবেন না।

এই জন্য বিশেষ বিশেষ কাজের জন্য আপনাকে বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার ইন্সটল করতে হবে।

ব্যাংক, হসপিটাল, শিক্ষা ক্ষেত্রে বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়। যদি কম্পিউটারের মধ্যে অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার ইন্সটল না করা হয় তাহলে এইসব ক্ষেত্রগুলিতে কম্পিউটারের মাধ্যমে কাজ করানো সম্ভব হবে না।

উপসংহার

আশা করি আজকের আর্টিকেল থেকে অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার কাকে বলে ও কত প্রকার – এই সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেয়ে গেছেন। যদি এখনো এই আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদেরকে জানাতে পারেন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment