অনলাইন ক্লাস কি – Online Class কিভাবে করবো?

Online Class – আজকের যুগে সবকিছু ডিজিটালভাবে হচ্ছে। এই জন্য কেনাকাটা, মোবাইলে রিচার্জ, বিল পেমেন্ট এর মত জিনিসগুলি অনলাইনের মাধ্যমে করার করার সাথে সাথে; শিক্ষা গ্রহণ এবং পঠন পাঠনও আজকাল অনলাইনের মাধ্যমে হয়।

এই জন্য আজ বেশিরভাগ জায়গায় শিক্ষকরা অনলাইন ক্লাস এর মাধ্যমে ছাত্রদের শিক্ষা দান করে থাকেন।

ছাত্রদের বর্তমান এই নতুন পদ্ধতিটি সম্পর্কে আজকের আর্টিকেলে আমরা আলোচনা করব। যে সমস্ত ছাত্রদের এখনো পর্যন্ত অনলাইন ক্লাস সম্পর্কে doubt বা কোনো প্রশ্ন রয়েছে, তারা আজকের এই আর্টিকেল থেকে অনলাইন ক্লাস সম্পর্কে সবকিছু জানতে পারবেন।

এইজন্য যদি আপনি ও একজন ছাত্র হয়ে থাকেন এবং অনলাইন ক্লাস করবার কথা ভাবেন তাহলে অনলাইন ক্লাস কি, অনলাইন ক্লাস কিভাবে হয়, অনলাইন ক্লাস কিভাবে করবো এবং অনলাইন ক্লাসের সুবিধা ও অসুবিধাগুলি অবশ্যই জেনে নিন।

অনলাইন ক্লাস কি?

অনলাইন ক্লাস হল এমন একটি ক্লাস যেখানে শিক্ষক অনেক দূরে এবং ইন্টারনেটের সাহায্যে, মোবাইল এবং কম্পিউটার স্ক্রিন ব্যবহার করে শিশুদের শিক্ষা দেওয়া হয়।

এই পদ্ধতির মাধ্যমে একজন শিক্ষক শুধু তার নিজের জায়গা বা শুধু দেশ নয়, সারা বিশ্বের যেকোনো শিশুকে খুব সহজেই পড়াতে পারেন।

এর অনেক সুবিধা থাকার কারণে বর্তমান সময়ে, অনলাইন ক্লাসের এই পদ্ধতিটি অনেক বেশি ব্যবহার করা হচ্ছে কারণ।

এটি ব্যবহার করে, আমরা বিশ্বের যে কোনও জায়গা থেকে বড় বড় বিশ্ববিদ্যালয় এবং কলেজের অধ্যাপকদের কাছ থেকে অনলাইনে ক্লাস নিতে পারি।

এবং এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, এতে শুধু ছাত্ররা শিক্ষকের কথা শোনে না, ছাত্ররাও একই সাথে শিক্ষককে প্রশ্ন করতে পারে।

সোজা কথায় বলতে গেলে,

অনলাইনের মাধ্যমে একটি নির্দিষ্ট সময়ে একজন নির্দিষ্ট শিক্ষক, এক বা একাধিক ছাত্রদের শিক্ষা দান করার পদ্ধতিটি হলো অনলাইন ক্লাস।

অনলাইন ক্লাস মোবাইল বা কম্পিউটার এবং ইন্টারনেট ছাড়া সম্ভব নয়।

অনলাইন ক্লাস কাকে বলে?

ইন্টারনেট এবং কম্পিউটার ব্যবহার করে, অনলাইনের মাধ্যমে শিক্ষা গ্রহণ এবং শিক্ষা দান করার প্রক্রিয়াকে অনলাইন ক্লাস বলা হয়।

এই পদ্ধতির মাধ্যমে একজন শিক্ষক একটি নির্দিষ্ট জায়গা থেকে পৃথিবীর যেকোন প্রান্তের যেকোন ছাত্রকে বা ছাত্রদের শিক্ষাদান করতে পারেন।

অনলাইন ক্লাস কিভাবে হয়?

কম্পিউটার এবং মোবাইলের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের টুলস এবং এপ্লিকেশন ইন্সটল করে, শিক্ষকদের সাথে ছাত্ররা কানেকশন তৈরি করে।

এবং ভিডিও চ্যাটিং ও নোট গ্রহণ এবং বিতরণের মাধ্যমে অনলাইন ক্লাস হয়।

অনলাইন ক্লাস কিভাবে করবো?

অনলাইন ক্লাস করার জন্য আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারে ইন্টারনেট থাকা প্রয়োজন।

যার মাধ্যমে আপনি শিক্ষকের কথা মত, নিচে থেকে যে কোন একটি অ্যাপ্লিকেশন আপনার কম্পিউটার এবং মোবাইলে ইন্সটল করবেন।

  • Zoom
  • Facebook Live
  • Google Hangouts
  • Skype
  • Google Duo
  • Google Meet
  • YouTube Live

বেশিরভাগ শিক্ষকরা অনলাইন ক্লাস করবার জন্য উপরে দেওয়া জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশনগুলি ব্যবহার করে থাকে।

এরপর নির্দিষ্ট অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে, ভিডিও কলিং, ভিডিও স্ট্রিমিং এবং ফটো শেয়ারিং এর মাধ্যমে, আপনার শিক্ষকের সাথে কানেকশন তৈরি করবেন।

এরজন্য Whatsapp, Google Notes এর মত অ্যাপ্লিকেশন গুলি ব্যাবহার করতে পারেন।

এরপর অনলাইন ক্লাস এর ডেট এবং টাইম অনুযায়ী, আপনি অ্যাপ্লিকেশনটির মাধ্যমে আপনার শিক্ষকের সাথে যোগাযোগ করবেন। এবং তার দেওয়া নোটগুলি আপনি, আপনার ডিভাইসের মধ্যে ডাউনলোড করে রাখবেন।

এবং শিক্ষকের দেওয়া হোমওয়ার্ক গুলি আপনি অ্যাপ্লিকেশনগুলির মাধ্যমে শিক্ষক কে পাঠাতে পারবেন।

এই ভাবেই আপনি খুব সহজে অনলাইন ক্লাস করতে পারবেন।

অনলাইন ক্লাস সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য আপনি যে শিক্ষকের কাছে অনলাইন ক্লাস করতে চান তার পরামর্শ নিন।

অনলাইন ক্লাসের সুবিধা ও অসুবিধা

অনলাইন ক্লাসের সুবিধা ও অসুবিধা দুই আছে। নিচে এগুলি সম্পর্কে দেখে নিন।

সুবিধা

  1. ছাত্রদের কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার প্রয়োজন নেই এবং ঘরে বসে যেকোন সময় যেকোন জায়গায় তাদের প্রিয় শিক্ষকের কাছ থেকে অনলাইন ক্লাস নিতে পারে।
  2. শুধু তাই নয়, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি, অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি ইত্যাদির মতো জনপ্রিয় কলেজ গুলির প্রফেসরদের কাছ থেকে অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমেও পড়াশোনা করতে পারবেন।
  3. একটি online class আপনি যখনই চান, তখনই ক্লাসের বিষয়বস্তু অ্যাক্সেস করতে পারেন।
  4. হোমওয়ার্ক এবং অ্যাসাইনমেন্টগুলি অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজে জমা দেওয়া যায়।
  5. নোট বা অ্যাসাইনমেন্ট হারানোর কোন ভয় নেই।
  6. ভবিষ্যতে যখন ইচ্ছা এই ফাইলগুলি অ্যাক্সেস করতে পারবেন।
  7. আগে কলেজে ভর্তির ফরম নিতে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়াতে হতো, ফি জমা দিয়েও একই অবস্থা হতো। কিন্তু এখন এই সমস্ত কাজ অনলাইনেও করা হচ্ছে যা সহজেই কয়েক মিনিটে করা যায়।
  8. ছাত্ররা অনলাইনে তাদের পরীক্ষা দেয়, এর জন্য তাদের কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে আসার দরকার নেই।
  9. একজন student, একটি প্রথাগত শ্রেণীকক্ষের তুলনায় একটি অনলাইন ক্লাসে আরও দ্রুত এবং ভাল শেখে কারণ এটি বিভিন্ন পদ্ধতির মাধ্যমে ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করে।

অসুবিধা

  1. অনলাইন ক্লাসের সবচেয়ে বড় অসুবিধা হল একটি ছাত্র যদি স্ব-শৃঙ্খলাবদ্ধ না হয় তবে সে নিয়মিত অনলাইন ক্লাস নেয় না। যার কারনে সে অন্য শিশুদের থেকে অনেক পিছিয়ে থাকে।
  2. অনলাইন ক্লাসে, শিশুরা শেখার পরিবেশ পায় না যেখানে তারা শিক্ষকের সাথে মুখোমুখি কথা বলতে পারে।
  3. যে বিষয়গুলো বেশি কঠিন, সেসব বিষয় অনলাইন ক্লাসে ভালোভাবে শেখা যায় না।
  4. একটি ঐতিহ্যবাহী শ্রেণীকক্ষে, যখন সমস্ত শিশু একসাথে পড়ে, তখন খেলাধুলা এবং দুষ্টু ছেলেমেয়েরাও পড়াশোনা করে, তবে অনলাইন ক্লাসে শিশুকে শৃঙ্খলার মধ্যে থেকে নিজেকে বুঝতে হবে।

উপসংহার

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে অনলাইন ক্লাস কি, অনলাইন ক্লাস কিভাবে হয়, অনলাইন ক্লাস কিভাবে করবো এবং অনলাইন ক্লাসের সুবিধা ও অসুবিধাগুলি সম্পর্কে জেনে গেছেন। যদি এখনো এই আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment