সাইবার সিকিউরিটি কি | সাইবার সিকিউরিটি বলতে কী বোঝায়?

এই আধুনিক যুগে সারা বিশ্ব ইন্টারনেটের মাধ্যমে একে অপরের সাথে সংযুক্ত, এমন পরিস্থিতিতে সাইবার ক্রাইমের অনেক ঘটনা এবং সাইবার সিকিউরিটি সম্পর্কে আপনি নিশ্চয়ই শুনেছেন।

কিন্তু এই সম্পর্কে হয়তো আপনার অধিক জ্ঞান নেই। এই কারণে আজকের এই আর্টিকেল থেকে আমরা সাইবার সিকিউরিটি সম্পর্কে আলোচনা করব।

যেখান থেকে আপনি সাইবার সিকিউরিটি কি বা কাকে বলে, সাইবার সিকিউরিটি বলতে কী বোঝায় এবং কিভাবে সাইবার আক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষা করবেন – এই সম্পর্কে জানতে পারবেন।

যদি আপনিও এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পেতে চান তাহলে আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন।

সাইবার সিকিউরিটি কি?

সাইবার সেফটি বা সাইবার সিকিউরিটি হলো, ইন্টারনেটের সাথে জোড়া সমস্ত সিস্টেমকে দেওয়া এক ধরনের সুরক্ষা।

যার মাধ্যমে কোন সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যার এর সমস্ত ডাটা চুরি হওয়া থেকে বাঁচানো হয় এবং সমস্ত ফাইলগুলি সিকিউর করে রাখা হয়।

যেখানে, সাইবার এর মধ্যে,

Internet, ইনফর্মেশন, টেকনোলজি, Computer, Network, Application এবং ডাটা এগুলি সাইবার এর মধ্যে পড়ে।

এবং সিকিউরিটির মধ্যে System Security, Netrwork Security, Application এবং Information Security অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

সাইবার সিকিউরিটি কাকে বলে?

সাইবার আক্রমণ থেকে ডেটা, কম্পিউটার, নেটওয়ার্ক এবং সফ্টওয়্যারকে রক্ষা করার পদ্ধতিকে, সাইবার সিকিউরিটি বলে।

সাইবার সিকিউরিটি বলতে কী বোঝায়?

সাইবার নিরাপত্তা, যাকে কম্পিউটার নিরাপত্তা বা তথ্য প্রযুক্তি নিরাপত্তাও বলা হয়। সাইবার সিকিউরিটি, হলো – সাইবার আক্রমণ থেকে ডেটা, কম্পিউটার, নেটওয়ার্ক এবং সফ্টওয়্যারকে রক্ষা করার একটি পদ্ধতি।

সাইবার সিকিউরিটি হল কম্পিউটার এবং নেটওয়ার্কে উপলব্ধ যেকোনো ধরনের তথ্য ও জিনিসকে সুরক্ষিত ও গোপনীয় রাখা। এটি সফ্টওয়্যার বা ইলেকট্রনিক ডেটা চুরি বা ক্ষতি থেকে কম্পিউটার সিস্টেম এবং নেটওয়ার্কগুলির সুরক্ষা দিয়ে থাকে।

সাইবার নিরাপত্তা বলতে ইন্টারনেটে নিরাপত্তা বোঝায়। আপনি যখন ইন্টারনেট ব্যবহার করেন বা ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত থাকেন, তখন অনেক ধরনের হুমকি আপনার উপর হয়ে থাকে।

কারণ হ্যাকাররা বিভিন্ন উপায়ে সাইবার নিরাপত্তা লঙ্ঘন করে আপনার সিস্টেমে প্রবেশ করতে পারে। এই সকল জিনিসগুলি সাইবার সিকিউরিটি দ্বারা আটকানো হয়।

সাইবার সিকিউরিটির কাজ

সাইবার সিকিউরিটির কাজ হল ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত ডিভাইস, সফ্টওয়্যার এবং ডেটা এবং নেটওয়ার্কগুলির নিরাপত্তা প্রদান করা।

সাইবার নিরাপত্তায় , আপনার নেটওয়ার্ক, ডিভাইস, সফ্টওয়্যার এবং ডেটা সুরক্ষিত স্তর দ্বারা সুরক্ষিত থাকে। যাতে আপনার ডেটা ভুল কার্যকলাপ থেকে ইন্টারনেটের মধ্যে নিরাপদ রাখা হয়।

সাইবার সিকিউরিটির প্রয়োজনীয়তা

  • image, Pdf, Text Document এর মত জিনিসগুলি সুরক্ষিত থাকে
  • ব্যাংকিং এবং ফিনান্সিয়াল ডাটাগুলোকে সুরক্ষা প্রদান করে
  • Defence System কে সুরক্ষিত রাখে
    আমাদের নিজস্ব Copyright জিনিসগুলি চুরি হওয়ার হাত থেকে বাঁচায়
  • এখানে সরকারি এবং বেসরকারি অফিসের বিভিন্ন ডাটা গুলি হ্যাক হওয়া থেকে রক্ষা করে।

সাইবার হামলার ধরন

১. ম্যালওয়্যার

ম্যালওয়্যার আক্রমণ হল সাইবার আক্রমণের অন্যতম সাধারণ ধরন। ক্ষতিকারক সফ্টওয়্যারকে ম্যালওয়্যার বলা হয়।

ম্যালওয়্যার হল একটি বিপজ্জনক কম্পিউটার সফ্টওয়্যার প্রোগ্রাম যা হ্যাকার বা সাইবার অপরাধীদের দ্বারা তৈরি করা হয়েছে। যা অন্য ব্যবহারকারীদের হয়রানি করতে এবং তাদের সিস্টেমের ক্ষতি করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছে।

২. ফিশিং

ফিশিং হল এক ধরনের সাইবার আক্রমণ, যেখানে সাইবার অপরাধী ফেক ইমেল বা ফেক এসএমএসের মাধ্যমে ব্যবহারকারীকে একটি জাল লিঙ্ক পাঠায়।

যেখান থেকে ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য যেমন লগইন আইডি এবং পাসওয়ার্ড, ক্রেডিট কার্ড/ডেবিট কার্ডের বিবরণ চুরি হয়ে যায়।

৩. এসকিউএল ইনজেকশন

এসকিউএল (স্ট্রাকচার্ড ল্যাঙ্গুয়েজ কোয়েরি) ইনজেকশন এটি এক ধরনের সাইবার আক্রমণ, যেখানে একজন সাইবার অপরাধী, ডাটাবেস থেকে ব্যবহারকারীর ডেটা চুরি করে এবং এটি নিয়ন্ত্রণ করে।

৪. জিরো-ডে

এটি এমন এক ধরনের সাইবার আক্রমণ যাতে একটি সিস্টেমের সফটওয়্যারের ত্রুটি খুঁজে বের করা হয় এবং সেটিকে লক্ষ্যবস্তু করা হয়।

বন্ধুরা, এর বাইরেও অনেক ধরনের সাইবার অ্যাটাক রয়েছে। কারণ সাইবার অপরাধীরা প্রতিনিয়ত নিত্যনতুন পন্থা ও কৌশল খুঁজে বেড়াচ্ছে।

বিশ্বে সাইবার হামলার এমন অনেক কৌশল রয়েছে যা এখনও বিশ্বের সামনে আসেনি।

কিভাবে সাইবার আক্রমণ থেকে নিজেকে রক্ষা করবেন?

সফ্টওয়্যার এবং অপারেটিং সিস্টেম আপডেট করুন

আপনি আপনার সিস্টেমে যে সফ্টওয়্যারগুলি ব্যবহার করেন, সর্বদা সেই সমস্ত সফ্টওয়্যারগুলিকে সর্বশেষ সংস্করণে আপডেট করুন এবং আপনার সিস্টেমে যে OS (অপারেটিং সিস্টেম) কাজ করছে তা আপডেট করুন।

আপনি অবশ্যই জানেন যে সফ্টওয়্যার এবং অপারেটিং সিস্টেম কোডিং থেকে তৈরি এবং যখন সফ্টওয়্যার কোম্পানিগুলি আপডেট করে তখন পুরানো কোডের সাথে নতুন কোড যোগ করা হয়।

যখনই যেকোন সফটওয়্যারের লেটেস্ট ভার্সন আসে, তার পুরানো ভার্সন হ্যাকারদের দ্বারা হ্যাক হয়ে যেতে পারে, তাই আপনার সিস্টেমে ইন্সটল করা সব সফটওয়্যার এবং অপারেটিং সিস্টেম আপডেট করতে থাকুন।

অ্যান্টি ভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করুন

আপনার সিস্টেমে সবসময় অ্যান্টি ভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করুন। অ্যান্টি-ভাইরাস সফ্টওয়্যার, ভাইরাসগুলিকে আপনার সিস্টেমে প্রবেশ করতে বাধা দেয় এবং জাল অনিরাপদ ওয়েবসাইট এবং প্রোগ্রামগুলিকে ব্লক করে।

অ্যান্টিভাইরাস আপনার সিস্টেমে উপস্থিত ভাইরাসকেও সরিয়ে দেয় এবং আপনার সিস্টেমের নিরাপত্তাও অনেকাংশে বাড়িয়ে দেয়।

একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন

লগইন সিস্টেমে সর্বদা শক্তিশালী পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন। এমন পাসওয়ার্ড রাখুন যা কেউ সহজেই অনুমান করতে পারে না, সর্বদা আপনার পাসওয়ার্ড গোপন রাখুন এবং কাউকে বলবেন না।

পাসওয়ার্ড তৈরি করার সময়, এতে আপনার নাম, জন্ম তারিখ, মোবাইল নম্বরের মতো জিনিসগুলি অন্তর্ভুক্ত করা উচিত।

এই ধরনের পাসওয়ার্ড ক্র্যাক করা সহজ। একটি শক্তিশালী পাসওয়ার্ড তৈরি করতে, এতে বিশেষ অক্ষর, চিহ্ন, অক্ষর, সংখ্যার সংমিশ্রণ তৈরি করুন এবং কয়েক দিন পর আপনার পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করতে থাকুন।

অজানা ইমেল খুলবেন না

অজানা ইমেল ঠিকানা থেকে কোনও ইমেল খুলবেন না কারণ এতে ভাইরাস থাকতে পারে এবং এটি আপনার ডেটা চুরি করার জন্য সাইবার অপরাধীদের ষড়যন্ত্রও হতে পারে।

অজানা ইমেলের লিঙ্কে ক্লিক করবেন না

ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা মাঝে মাঝে এমন ভুয়া মেইল ​​পান যাতে লেখা থাকে যে আপনার লটারি শুরু হয়েছে বা যে কোনো ব্যাংকের নামে ভুয়া ইমেইল আসে যা আপনাকে অর্থের প্রলোভন দেয়। এবং অনেক সময় ভুয়া চাকরিও আসে।

আপনাকে এখানে, একটি ওয়েবসাইটের লিঙ্ক দেওয়া হয়। যার নিচে কোনো ভুয়া ওয়েবসাইট হতে পারে, এটি কোনো ভাইরাস হতে পারে, তাই কোনো অজানা ইমেইলের লিংক খুলবেন না।

অনিরাপদ ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা এড়িয়ে চলুন

কখনও কখনও বিনামূল্যের WIFI সর্বজনীন স্থানে উপস্থিত থাকে, তবে এই জাতীয় WIFI নেটওয়ার্কগুলি অনিরাপদ হতে পারে।

যার কারণে আপনি ম্যান-ইন-দ্য-মিডল আক্রমণের শিকার হতে পারেন, তাই কখনও আপনার সিস্টেমকে অনিরাপদ WIFI নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত করবেন না।

সাইবার সিকিউরিটি বেতন

একজন সাইবার সিকিউরিটি অ্যানালিস্টের বেতন সম্পূর্ণ নির্ভর করে তার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতার ওপর। মিড লেভেল পদের একজন সাইবার সিকিউরিটির বেতন ৪০,০০০ টাকা। অবশ্য বড় প্রতিষ্ঠানগুলোর ক্ষেত্রে এদের আয় আরোও বেশি।

উপসংহার

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেল থেকে সাইবার সিকিউরিটি কি, সাইবার সিকিউরিটি বলতে কী বোঝায় এবং এর থেকে কিভাবে নিজেকে রক্ষা করতে হয় – এই সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন। যদি আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার এখনো কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment