ল্যাপটপ কাকে বলে – ল্যাপটপ কে আবিষ্কার করেন

ল্যাপটপ কি – ল্যাপটপের নাম শোনেননি এমন লোক খুব কমই আছে। কারন আজকাল বেশিরভাগ ছাত্র ছাত্রী ল্যাপটপ ব্যবহার করেই থাকে। তবে যদি আপনার মনে ল্যাপটপ সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকে, তাহলে আপনি আজকের আর্টিকেলে, ল্যাপটপ কাকে বলে, ল্যাপটপ কে আবিষ্কার করেন, ল্যাপটপের দাম কত, ল্যাপটপ কেনার আগে কি দেখবেন এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর আপনি পেয়ে যাবেন।

যদি আপনি, ল্যাপটপ সম্পর্কে সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পেতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন।

ল্যাপটপ কাকে বলে?

ল্যাপটপ হলো একটি ছোট কম্পিউটার। যদি ডেস্কটপ কম্পিউটার রূপান্তরিত হয়ে তৈরি হয়। এটি ব্যাটারীতে চালিত হওয়ার কারণে, চার্জ হওয়ার পর এটিকে একস্থান থেকে অন্যস্থানে খুব সহজে নিয়ে যাওয়া যায়। ল্যাপটপের সাইজ নোটবুক এর মত হওয়ার কারণে এটিকে নোটবুক ও বলা হয়।

ডেস্কটপ কম্পিউটারে যেমন কিবোর্ড মাউস এবং আরো কম্পনেন্ট আলাদা আলাদা ভাবে সজ্জিত থাকে, ল্যাপটপে তেমন সব কম্পোনেন্ট গুলি একসাথে জোড়া থাকে।

ল্যাপটপ শব্দের অর্থ কি

Lap মানে কোল এর Top মানে উপর। কোলের উপর রেখে এই জিনিসটা চালানোর ফলে এটিকে ল্যাপটপ বলা হয়।

ল্যাপটপ এর ফুল ফর্ম

L – Lightweight
A – Analytical
P – Platform with
T – Total
O – Optimized
P – Power

ল্যাপটপ কে আবিষ্কার করেন

১৯৭০ সালে, Alan Key নামক এক ব্যক্তি প্রথম ল্যাপটপ এর কল্পনা করেন। এবং এরপর তার সেই কল্পনার উপর ভিত্তি করে ১৯৭৫ সালে, IBM 5100 নামক প্রথম পোর্টেবল কম্পিউটার তৈরি করা হয়।

এরপর থেকেই একটি একটি করে কোম্পানি তাদের নিজস্ব প্রোডাক্ট তৈরি করতে শুরু করে। এবং সেগুলি বাজারজাত করে মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়।

ল্যাপটপে কি কি কাজ করা যায়

যদি আপনি না জেনে থাকেন ল্যাপটপে কি কাজ করা যায় তাহলে আমি বলে রাখি, ল্যাপটপ হল এক ধরনের কম্পিউটার। আর একটি কম্পিউটারে যেসব কাজ করা হয় ল্যাপটপে আপনি সেই কাজগুলোই করতে পারবেন।

  • লেখালেখি করা যায়
  • গান ও ভিডিও দেখা যায়
  • কোনো জিনিস এন্ট্রি করা যায়
  • অ্যানিমেশন তৈরি করা যায়
  • অ্যাপ ডেভেলপমেন্ট করা যায়
  • গেম খেলা যায়
  • ফটো এবং ভিডিও এডিটিং করা যায়
  • ওয়েবসাইট ডেভেলপমেন্ট করা যায়
  • হাসপাতালের বিভিন্ন কাজকর্ম করা যায়
  • বিভিন্ন জিনিসের হিসাবপত্র রাখা যায়
  • কঠিন হিসাব নিকাশ করা যায়
  • ইত্যাদি।

ল্যাপটপে কি কি Parts থাকে?

একটি ল্যাপটপ বিভিন্ন ছোট ছোট অংশ নিয়ে তৈরি হয়। তবে গুরুত্বপূর্ণ যে সমস্ত অংশগুলি ল্যাপটপের মধ্যে থাকে সেগুলি হল-

  • Display
  • CPU
  • GPU
  • Memory
  • Internal Storage
  • Removable Media Drive
  • Input/Output Ports
  • Expansions Cards
  • Battery and Power Supply
  • Cooling Fan
  • Accessories

ল্যাপটপ কত প্রকারের হয়?

প্লেটোর গঠন এবং কাজের ধরন অনুযায়ী ল্যাপটপকে মোট ভাগে ৭ ভাগ করা হয়। সেগুলি হল

  1. Traditional Laptop
  2. Notebook
  3. Convertible or Hybrid
  4. Desktop Replacement
  5. Rugged Laptop
  6. Business Laptop

ল্যাপটপ ব্যবহারের সুবিধা

  1. ল্যাপটপ খুবই ছোট হওয়ার কারণে এটিকে কোলে বসিয়ে, খুব সহজেই কাজকর্ম করা যায়।
  2. এটাকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় বহন করে নিয়ে যাওয়া যায়।
  3. কারেন্ট অফ হয়ে গেলে ল্যাপটপে কাজ করা যায়।
  4. ল্যাপটপের চালু বন্ধ করার সুইচ থাকার কারণে, এটিকে খুব সহজে চালু এবং বন্ধ করা যায়।
  5. ল্যাপটপ এ যে সমস্ত Port গুলি থাকে সেগুলিতে খুব সহজে, যেকোনো কম্পনেন্ট লাগানো যায়।
  6. আলাদা করে কিবোর্ড এবং মাউস লাগাতে হয় না।

ল্যাপটপ এর দাম

ল্যাপটপের শুরু ১৫০০০ থেকে। যদি আপনি কি একটা কিনতে চান তাহলে আপনি কুড়ি হাজারের মধ্যে ভালো ল্যাপটপ পেয়ে যাবেন। তবে আপনি যদি আরো ভালো একটা কিনতে চান তাহলে ১৫০০০০ টাকা পর্যন্ত মূল্যের আপনি যেকোন ল্যাপটপ কিনতে পারেন।

ল্যাপটপের দাম নির্ভর করে ল্যাপটপের কোয়ালিটি এবং পারফরমেন্সের উপর। আপনি যত বেশি দামের ল্যাপটপ কিনবেন আপনার ল্যাপটপের কোয়ালিটি তত বেশি হবে।

ল্যাপটপ কেনার আগে কি কি দেখবেন?

যদি আপনি ল্যাপটপ কিনতে চান তাহলে কিছু জিনিস অবশ্যই দেখে নেওয়া দরকার। সেগুলি হল –

  • আপনি কোন পারপাসে ল্যাপটপ কিনছেন সেটি আগে নির্বাচন করুন। এবং তার ওপর ভিত্তি করে ল্যাপটপ কিনুন।
  • যে ল্যাপটপটি কিনছেন, সিটির মিনিমাম Ram যেনো, 4GB অবশ্যই থাকে।
  • ল্যাপটপের প্রসেসর টি দেখে নিন। প্রসেসর যত বেশি হবে, পারফরম্যান্স তত বেশি হবে।
    আপনার কাজের ধরন অনুযায়ী Hard Disk এর ক্যাপাসিটি দেখে নিন। এবং মিনিমাম 500 জিবি হার্ডডিস্ক এর ল্যাপটপ অবশ্যই নিন।
  • যে ল্যাপটপ নিচ্ছেন তার অপারেটিং সিস্টেম আপডেট আছে কিনা সেটি দেখে নিন।
  • ল্যাপটপের ওয়ারেন্টি এবং গ্যারান্টি গুলি অবশ্যই দেখুন।

উপসংহার

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে ল্যাপটপ কাকে বলে, ল্যাপটপের দাম কত, ল্যাপটপ কে আবিষ্কার করেন এবং ল্যাপটপ কেনার আগে কি কি দেখবেন এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি আপনি এখন ল্যাপটপ না কিনে থাকেন তাহলে আপনার কাজের জন্য একটি ল্যাপটপ কিনতে পারেন। এটা অবশ্যই ডেক্সটপ কম্পিউটার থেকে ভালো একটি নির্ণয় হবে।

আরও পড়ুন

শেয়ার করতে চান!
  •  
  •  
  •  
  •  

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment