লন্ডন কোন দেশের রাজধানী?

অনেক ব্যক্তি লন্ডন কোন দেশের রাজধানী এই প্রশ্নটির অনেক সময় সঠিক উত্তর পায়না। কেউ বলেন লন্ডন যুক্তরাজ্যের রাজধানী আবার কেউ বলেন ইংল্যান্ডের রাজধানী। তবে যুক্তরাজ্য এবং ইংল্যান্ডের মধ্যে একটি বিরাট পার্থক্য রয়েছে। যদি আপনি পার্থক্যটি বুঝতে পারেন তাহলে লন্ডন কোন দেশের রাজধানী এই প্রশ্নের উত্তরটিও পেয়ে যাবেন।

তাই চলুন দেরি না করে লন্ডন কোন দেশের রাজধানী এটি জেনে নেওয়া যাক।

লন্ডন কোন দেশের রাজধানী?

লন্ডন হলো একটি শহর। এই শহরটি ইংল্যান্ডের টেমস নদীর তীরে অবস্থিত। লন্ডন হলো যুক্তরাজ্যের রাজধানী ও বৃহত্তম নগরী।

যুক্তরাজ্য (United Kingdom) হলো একটি স্বাধীন দ্বীপরাষ্ট্র। যেটি ইউরোপীয় মূল ভূখণ্ডের উত্তর-পশ্চিম উপকূলের সন্নিকটে অবস্থিত।

এই রাষ্ট্রটির চারটি সাংবিধানিক রাষ্ট্র হলো ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, ওয়েল্‌স্‌ এবং উত্তর আয়ারল্যান্ড।

তবে ইংল্যান্ড ব্যতীত, তিনটি দেশের আবার আলাদা আলাদা রাজধানী রয়েছে।

আবার ইংল্যান্ডের রাজধানী হলো লন্ডন।

অর্থাৎ লন্ডন শহরটি পুরো যুক্তরাজ্যের (United Kingdom) রাজধানী। এবং যুক্তরাজ্যের মধ্যে অন্তর্গত দেশ ইংল্যান্ড এরও রাজধানী।

অর্থাৎ, লন্ডন কোন দেশের রাজধানী – এই প্রশ্নটির সঠিক উত্তর হবে, লন্ডন ইংল্যান্ডের রাজধানী

লন্ডন সম্পর্কে কিছু তথ্য

যুক্তরাজ্যের ১৩ শতাংশের বেশি লোক লন্ডনে বাস করে। ১৭শ শতক থেকে আজ পর্যন্ত লন্ডন হলো ইউরোপ মহাদেশের, বৃহত্তম শহর।

এটি হল ইংল্যান্ডের একটি বৃহত্তম শহর বা মহানগর। এই মহানগরটিতে বর্তমানে ৮৮ লক্ষ মানুষ বসবাস করেন।

লন্ডন শহরটি, গেট ব্রিটেন দ্বীপের দক্ষিণাংশে অবস্থিত।

এটি বিশ্বের প্রধানতম আর্থ-বাণিজ্যিক ও সাংস্কৃতিক রাজধানী শহরগুলির মধ্যে একটি।

উপসংহার

আশা করছি আজকের আর্টিকেল থেকে আপনি লন্ডন কোন দেশের রাজধানী এই সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন। এবং ইংল্যান্ড ও যুক্তরাজ্যের মধ্যে পার্থক্যটিও বুঝে গেছেন। যদি এই আর্টিকেলটি সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment