লক্ষ্মী পূজার মন্ত্র – গায়ত্রী মন্ত্র, প্রনাম মন্ত্র ও ধ্যানমন্ত্র

হিন্দু পরিবারের মেয়ে ও সধবারা বাড়িতে অনেক সময় লক্ষ্মী পূজা করে থাকে। এবং স্নান করবার পর অনেক হিন্দু মহিলা, মা লক্ষীকে সেবা দিয়ে থাকেন।

কিন্তু অনেকেই বিনা মন্ত্রে লক্ষ্মী পূজা করে থাকেন। কারণ বেশিরভাগ মহিলা লক্ষ্মী পূজার মন্ত্র জানেন না।

যদি আপনিও মন্ত্র ছাড়া লক্ষ্মী পূজা করে থাকেন এবং মন্ত্রটি জানতে চান, তাহলে নিচে থেকে মন্ত্রটি জেনে নিন।

মা লক্ষী সম্পর্কে কিছু কথা

লক্ষ্মী হলেন হিন্দুদের ধনসম্পদ, আধ্যাত্মিক সম্পদ, সৌভাগ্য ও সৌন্দর্যের দেবী। হিন্দু মতে তিনি হলেন বিষ্ণুর পত্নী।

লক্ষ্মী পূজার মন্ত্র

হিন্দু ধর্মীয় মানুষ মনে করেন যে, পৃথিবীতে বিষ্ণু; রাম ও কৃষ্ণ রূপে অবতার গ্রহণ করলে, লক্ষ্মী; সীতা ও রাধা রূপে তাঁদের সঙ্গিনী হন।

কোজাগরী পূর্ণিমার দিন তার বিশেষ পূজা হয়। এটি কোজাগরী লক্ষ্মী পূজা নামে খ্যাত। বাঙালি হিন্দুরা প্রতি বৃহস্পতিবার লক্ষ্মীপূজা করে থাকেন।

মা লক্ষীর কোনো অস্ত্র নেই। তিনি হাতে পদ্মফুল ধারণ করেন। এবং তার বহনের নাম হলো শ্বেত পেঁচা।

লক্ষ্মী পূজার মন্ত্র

যদি আপনি পুরোহিত ছাড়া বাড়িতে লক্ষ্মী পূজা করতে চান তাহলে এই মন্ত্রগুলি ব্যবহার করতে পারেন।

১) লক্ষ্মী পূজার গায়ত্রী মন্ত্র

ওঁ মহালক্ষ্ম্যৈ বিদ্মহে মহাশ্রীয়ৈ ধীমহি তন্নোঃ শ্রী প্রচোদয়াৎ।।

২) লক্ষ্মী পূজার প্রনাম মন্ত্র

ওঁ বিশ্বরূপস্য ভার্য্যাসি পদ্মে পদ্মালয়ে শুভে। সর্ব্বত পাহি মাং দেবী মহালক্ষ্মী নমহস্তুতে।।

৩) লক্ষ্মী পূজার ধ্যানমন্ত্র

ওঁ পাশাক্ষমালিকাম্ভোজ-সৃণিভির্ষাম্য-সৌম্যয়োঃ।
পদ্মাসনাস্থাং ধ্যায়েচ্চ শ্রিয়ং ত্রৈলোক্যমাতরম্।।
গৌরবর্ণাং সুরুপাঞ্চ সর্বলঙ্কার-ভূষিতাম্।
রৌক্মপদ্ম-ব্যগ্রকরাং বরদাং দক্ষিণেন তু।।

উপসংহার

আশা করি আজকের আর্টিকেল থেকে লক্ষ্মী পূজার মন্ত্র গুলি জেনে গেছেন। এখন প্রয়োজন অনুসারে, পূজা করার সময়, মন্ত্র গুলির ব্যবহার করতে পারেন। এবং আপনার পাড়া-প্রতিবেশীদের মহিলাদের সাথেও মন্ত্রগুলি বিতরণ করে নিন। ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment