মিশরকে নীলনদের দান বলা হয় কেন?

কোন দেশকে নীলনদের দান বলা হয় কেন – আমরা ইতিহাসের পাতায় অনেক সময় পড়েছি মিশরকে নীলনদের দান বলা হয়।

কিন্তু যারা ইতিহাসে এই বিষয়টি নিয়ে পড়েনি তাদের উদ্দেশ্যে আজকের এই আর্টিকেলটি লেখা হয়েছে। আজকের আর্টিকেল থেকে আমরা মিশরকে নীলনদের দান বলা হয় কেন এই সম্পর্কে জানবো।

যদি আপনি এই প্রশ্নের উত্তর জানতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি আপনাকে খুব সাহায্য করবে। এইজন্য আজকের আর্টিকেলটি থেকে এই প্রশ্নের উত্তরটা জেনে নিন।

মিশরকে নীলনদের দান বলা হয় কেন ব্যাখ্যা কর

মিশর হলো মরুভূমির দেশ। মিশর দেশের মাঝবরাবর উত্তর থেকে দক্ষিণে নীলনদ প্রবাহিত হয়েছে।

এই কারণে, মিশরের সুদীর্ঘ এলাকা মরুভূমির হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে এবং প্রত্যেক বছর নীলনদের বন্যায় দু-পাশের মরু অঞ্চল পলিমাটি দ্বারা উর্বর হয়ে ওঠে এবং পলি জমিতে পরিণত হয়।

এই জমিগুলি চাষের পক্ষে খুবই ভালাে। এই কারণে চাষ ও খাদ্যের প্রয়ােজনে প্রাচীন মিশরীয়গণ এখানে বসতি গড়ে তােলে এবং তুলা, গম, ধান, যব, আঁখ, ইক্ষু পেঁয়াজ প্রভৃতি ফসলের চাষাবাদ শুরু করে।

এইজন্য ঐতিহাসিক হেরােডােটাস মিশরকে ‘নীলনদের দান’ বলে আখ্যা করেছিলেন।

এছাড়াও নীলনদের জন্য মিশরে আরও কিছু উপকার হয়েছে। সেগুলি হলো –

মিশরকে নীলনদের দান বলা হয়েছে কেন?

১. নীল অববাহিকার তৃণভূমিতে গরু, ভেড়া, ছাগলের মোট প্রভৃতি পশুপালন করা হয়। এই কারণে বহু মিশরীয়দের জীবিকানির্বাহ সম্ভব হয়।

২. নীলনদ দিয়ে সারা বছর জাহাজ ও নৌকা চলাচল করতে পারে।

৩. নীলনদের দুই তীর সমতলভূমি হওয়ার কারণে, এর ওপর রেল লাইন ও প্রশস্ত সড়ক পথ নির্মাণ করা সম্ভব হয়েছে।

৪. নীলনদের ওপর নির্মিত বৃহদায়তন বাঁধগুলােতে বিপুল পরিমাণে জলবিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়। এই কারণে বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান হয়।

৫. উন্নত কৃষি, সুলভ শ্রমিক ও জলবিদ্যুৎ এবং জলপথে খনিজদ্রব্য, কাঁচামাল ও পরিবহনের সুবিধা থাকায় নীলনদের অবাহিকায় নানান শিল্প গড়ে উঠেছে।

মিশর ও মিশরীয়দের এত কিছুর পেছেনো শুধুমাত্র নীলনদের অবদান থাকার কারনে মিশরকে নীলনদের দান বলা হয়।

কোন দেশকে নীলনদের দান বলা হয়?

মিশরকে নীলনদের দান বলে।

উপসংহার

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে মিশরকে নীলনদের দান বলা হয় কেন – এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি এই তথ্যটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে চান তাহলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে নিন। এবং এই আর্টিকেলটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আমরা কমেন্ট এর মাধ্যমে আপনাকে অবশ্যই সাহায্য করার চেষ্টা করব। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

শেয়ার করতে চান!

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment