মিনি কম্পিউটার কাকে বলে ও জনক কে?

আগের আর্টিকেল থেকে আমরা সুপার কম্পিউটার সম্পর্কে জেনেছিলাম। আজ আমরা মিনি কম্পিউটার সম্পর্কে আলোচনা করব। যার মাধ্যমে আপনারা মিনি কম্পিউটার সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য পেয়ে যাবেন।

যেমন মিনি কম্পিউটার কাকে বলে, মিনি কম্পিউটারের জনক কে, মিনি কম্পিউটার এর বৈশিষ্ট্য এবং ব্যবহার ইত্যাদি।

যদি আপনিও এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তরগুলি পেতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে পড়তে থাকুন।

মিনি কম্পিউটার কি?

একটি মিনি কম্পিউটারের আকার একটি মাইক্রো কম্পিউটার এবং একটি মেইনফ্রেম কম্পিউটারের মধ্যে হয়ে থাকে।

অর্থাৎ একটি মিনি কম্পিউটার, মাইক্রোকম্পিউটার থেকে বড় এবং মেইনফ্রেম কম্পিউটারের চেয়ে ছোট।

মিনি কম্পিউটারগুলি ব্যবসা, কম্পিউটার সেন্টার ইত্যাদি জায়গায় ব্যবহার করা হয়।

ডাটাবেস ম্যানেজমেন্ট, ফাইল হ্যান্ডলিং, ব্যবসায়িক লেনদেন প্রক্রিয়াকরণ ইত্যাদিতে মিনি কম্পিউটার সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়।

এটি হলে মধ্যম শ্রেণীর একটি কম্পিউটার।

মিনি কম্পিউটার কাকে বলে?

মাইক্রোকম্পিউটার থেকে বড় এবং মেইনফ্রেম কম্পিউটারের চেয়ে ছোট, অর্থাৎ এই দুই কম্পিউটারের মধ্যে যে কম্পিউটার গুলি রয়েছে সেগুলিকে মিনি কম্পিউটার বলা হয়।

মিনি কম্পিউটার এর উদাহরণ

মাইটি ফ্রেম এবং মেক মিনি হলো মিনি কম্পিউটার এর উদাহরণ।

মিনি কম্পিউটারের জনক কে?

মিনি কম্পিউটারের উদ্ভাবক ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেড হফ, স্ট্যান মেজর, ফেডরিকো ফ্যাগিন এবং জাপানের মাসাতোশি শিমা।

তবে কেনেথ এইচ অলসেন নামক এক ব্যাক্তি সর্বপ্রথম মিনি কম্পিউটারের সূচনা করেন। তাই কেনেথ এইচ অলসেন কেই মিনি কম্পিউটারের জনক হিসেবে ধরা হয়।

তাদের পরিকল্পনার উপর ভিত্তি করে, IBM কর্পোরেশন 1960-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে প্রথম মিনি কম্পিউটার তৈরি করে।

মিনি কম্পিউটারের বৈশিষ্ট্য

  • একসাথে অনেক ব্যক্তি কাজ করতে পারে
  • মাইক্রোকম্পিউটারের থেকে কাজ করার গতি বেশি
  • একের অধিক সেন্ট্রাল প্রসেসিং ইউনিট হয়ে থাকে
  • এই ধরনের কম্পিউটারে, সুপার চিপ ব্যবহার করে সুপার মিনি কম্পিউটার এ পরিবর্তন করা যায়
  • মিনি কম্পিউটার এর দাম মাইক্রোকম্পিউটারের থেকে বেশি এবং মেইনফ্রেম কম্পিউটার থেকে কম।

মিনি কম্পিউটার এর ব্যাবহার

  1. লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্ক এর সার্ভার বানানোর জন্য মিনি কম্পিউটার ব্যবহার করা হয়
  2. বীমা কোম্পানিতে ব্যবহার করা হয়
  3. বিভিন্ন অর্গানাইজেশনের কর্মীদের বেতন, উৎপাদন পরিকল্পনা, হিসাব নিকাশ করার কাজে ব্যবহার করা হয়
  4. বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ডাটাবেস ম্যানেজমেন্ট করা এবং ফাইল হস্তান্তরের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়
  5. এবং ব্যবসার ট্রানজাকশন খতিয়ে দেখতে মিনি কম্পিউটার ব্যবহার করা হয়।

উপসংহার

আমি আশা করছি আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনারা মিনি কম্পিউটার সম্পর্কে সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পেয়ে গেছেন। যদি আপনার মনে এখনো মিনি কম্পিউটার সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আমরা কমেন্ট এর মাধ্যমে আপনাকে উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব। ধন্যবাদ ভাল থাকবেন।

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment