ব্যাডমিন্টন কোর্টের মাপ বাংলায়

ব্যাডমিন্টন কোর্টের মাপ কত – এই জনপ্রিয় ব্যাডমিন্টন খেলা প্রায় সকল বয়সের লোকই খেলে থাকেন। শীতকালে এই খেলাটি জনপ্রিয় হওয়ার কারণ হলো – আমাদের সবারই শীতকালে শরীর পুরো ঠান্ডা বরফ হয়ে যায়।

আর এই খেলাটি খেলে শরীর গরম করা যায়। তাই এই খেলাটি বিশেষ করে শীতকালেই হয়ে থাকে এবং এইজন্যই এটি শীতকালের একটি জনপ্রিয় খেলা। ছোট-বড় সব বয়সের লোকই এই খেলাটি খেলে থাকেন।

ব্যাডমিন্টন খেলার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম

ব্যাডমিন্টন খেলার নিয়ম অনুসারে কিছু সরঞ্জাম প্রয়োজন হয়। যেমন – র‌্যাকেট, শাটল, নেট, পোস্ট এবং কোর্ট।

ব্যাডমিন্টন কোর্টের মাপের ছবি

ব্যাডমিন্টন কোর্টের মাপের ছবি

ব্যাডমিন্টন কোর্টের মাপ

ব্যাডমিন্টন খেলার কোর্টটি হবে আয়তাকার। একক এবং দ্বৈত উভয় ক্ষেত্রে কোর্টের মাপ দৈর্ঘ্যে হবে ৪৪ ফুট। প্রস্থের মাপ সিঙ্গেলস এবং ডাবলসে ভিন্ন হয়। একক হলে ১৭ ফুট এবং দ্বৈততে ২০ ফুট।

নেটের উচ্চতা হতে হবে মাটি থেকে ৫ ফুট ওপরে। নেটটির প্রস্থ ২.৫ ফুট এবং লম্বা ২০ ফুট।

ব্যাডমিন্টন কোর্টের মাপ

লম্বায় কোর্টের দুই মাথা থেকে ১৫ ফুট দূরে, প্রস্থ বরাবর আরও দুটি দাগ টানতে হয়। মাঝে যে ১৪ ফুট জায়গা থাকবে তার মাঝ বরাবর নেট থাকবে। আর নেটের দুই পাশে ৭ ফুট করে যে জায়গা তা হলো শর্ট সার্ভিস লাইন।

কোর্টের দুই মাথা থেকে ২ ফুট ৬ ইঞ্চি দূরত্বে প্রস্থ বরাবর আরও একটি করে দাগ টানতে হবে। যার নাম লং সার্ভিস লাইন। সেন্টার লাইন হয় প্রস্থ বরাবর কোর্টর মাঝখানে। শর্ট সার্ভিস লাইন পর্যন্ত।

আন্তর্জিতিক কোর্টের মাপ

ব্যাডমন্টিন খেলা সিঙ্গেল ও ডাবলসের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়। সিঙ্গেল কোর্ট-দৈর্ঘ্য ১৩.৪১ মিটার (৪৪ফুট, প্রস্থ ৫.১৮ মিটার(১৭ ফুট)।

ডাবলস কোর্ট-দৈর্ঘ্য ১৩.৪১ মিটার (৪৪ফুট, প্রস্থ ৬.১০ মিটার(২০ ফুট)। কোর্টের দু’টি পাশ্বরেখায় দুই মধ্য বিন্দু বরাবর ব্যাডমিন্টন নেট টাঙ্গানোর জন্য দু’টি খুঁটি বসবে।

এই বিন্দু থেকে উভয় দিকে প্রাপ্তরেখার সমান্তরালে ১.৯৮ মিটার (৬’৬”) দূরে টানতে হবে। একে শর্ট সার্ভিস লাইন বলে। আবার উভয় প্রাপ্তরেখা থেকে কোর্টের অভ্যন্তরে ০.৭৬ মিটার(২’৬”) দূরে প্রান্তরেখার সমান্তরালে দুটি লাইন টানতে হবে।

একে দ্বৈত খেলার জন্য লং সার্ভিস লাইন বলে। শর্ট সার্ভিস লাইন দ্বারা বিভক্ত দু’দিকের দু’টি কোর্টের মাঝ বরাবর পাশ্ব রেখার সমান্তরালে দু’টি লাইন টেনে রাইট সার্ভিস কোর্ট ও লেফট সার্ভিস কোর্ট নামে দু’টি কোর্ট তৈরি করতে হবে।

কোর্টের সকল মার্কিং বা দাগ ৪ সেন্টিমিটার চওড়া হবে।

র‌্যাকেট এবং শাটলের মাপ

র‌্যাকেটের দৈর্ঘ্য সর্বাধিক ৬৮ সেঃমিঃ চেয়ে বেশি হবেনা, এবং প্রস্থ ২৩ সেঃমিঃ চেয়ে বেশি হবেনা। জাল বোনা মাথার দৈর্ঘ্য সর্বাধিক ২৮ সেঃমিঃ চেয়ে বেশি হবেনা এবং জাল বোনা মাথার প্রস্থ সর্বাধিক ২২ সেঃমিঃ চেয়ে বেশি হবেনা

শাটলটির ওজন ৪.৭৪ গ্রামের কম অথবা ৫.৫০ গ্রামের বেশি হবে না। এর মধ্যে ১৪ থেকে ১৬টি পালক থাকবে।

ব্যাডমিন্টন পয়েন্ট স্কোর করার নিয়ম

২১ পয়েন্টের ৩ টি গেম নিয়ে একটি ম্যাচ হয়।

প্রতিবার সার্ভ করলে একটি করে পয়েন্ট অর্জিত হয়।

যে পক্ষ একটি র‌্যালি জেতে তার স্কোরের সাথে একটি পয়েন্ট যুক্ত হয়।

সর্বমোট ২০ পয়েন্টের খেলা শেষে যে পক্ষ প্রথমে ২ পয়েন্ট লিড নিয়েছিল সেই পক্ষই জিতবে।

সর্বমোট ২৯ পয়েন্টের খেলা শেষে যে পক্ষ ৩০ নং পয়েন্টটি করতে পারবে সে ই জিতবে।

যে পক্ষ একটি গেম জিতবে পরের গেম শুরুতে সেই সার্ভ করবে।

লিডিং পয়েন্ট যখন ১১ তে পৌঁছবে তখন খেলায় ৬০ সেকেন্ডের একটি বিরতি হবে।

পরপর দুটি গেমের মধ্যে ইচ্ছা করলে ২ মিনিটের বিরতি নেয়া যাবে।

তৃতীয় বারের খেলায় লিডিং পয়েন্ট ১১ হলে খেলোয়াড়গণ পার্শ্বপরিবর্তন করবেন।
সিঙ্গেল খেলা

খেলার শুরুতে (০-০) এবং সার্ভারের স্কোর যখন জোড়া সংখ্যা হবে তখন সে তার ডানের কোর্ট থেকে সার্ভ করবে। সার্ভারের স্কোর বিজোড় সংখ্যা হলে তার বামের কোর্ট থেকে সার্ভ করবে।

একজন সার্ভার যখন একটি র‌্যালি জিতবে তখন সার্ভার একটি পয়েন্ট পাবে এবং তারপরে সার্ভার কোর্ট বদল করে সার্ভ করবে।

রিসিভার যদি কোনো র‌্যালি জেতে তাহলে তার স্কোরে একটি পয়েন্ট যুক্ত হবে এবং সে তখন সার্ভার হবে। সবসময় সঠিক সার্ভিস কোর্ট থেকে সার্ভ করতে হবে- স্কোর যদি বিজোড় হয় তবে বামের কোর্ট থেকে আর স্কোর যদি জোড় হয় তবে ডানের সার্ভিস কোর্ট থেকে সার্ভ করতে হবে।

প্রতি পার্শ্ব থেকে একজন করেই সার্ভিস খেলতে পারবে।

ডায়াগ্রামে প্রদর্শিত আবর্তন নিয়মে সার্ভিস খেলা একজন খেলোয়াড় থেকে আরেকজনের কাছে যায়।

খেলার শুরুতে এবং স্কোর যখন জোড় সংখ্যা হয় সার্ভার তার ডানের সার্ভিস কোর্ট থেকে সার্ভ করবে। যখন এটা বিজোড় হবে তখন তার বামের সার্ভিস কোর্ট থেকে সার্ভ করবে ।

সার্ভিং পক্ষ যদি র‌্যালি জেতে তবে সাভিং পক্ষের স্কোরে একটি পয়েন্ট যুক্ত হবে এবং একই সার্ভার সার্ভিস কোর্ট বদল করে পুনরায় সার্ভ করবে।

সার্ভিং পক্ষ যদি কোনো র‌্যালিতে হেরে যায় তাহলে রিসিভিং পক্ষ একটি পয়েন্ট পাবে। তখন রিসিভিং পক্ষ নতুন সাভিং পক্ষতে পরিণত হবে।

কোনো পয়েন্ট অর্জন না করা পর্যন্ত খেলোয়াড়েরা কেউই নিজ নিজ সার্ভিস কোর্ট বদলাতে পারবে না।

উপসংহার

আশাকরি উপরের ফর্মেশন থেকে ব্যাডমিন্টন কোর্টের মাপ কত এবং ব্যাডমিন্টন খেলার নিয়ম গুলি সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন। যদি আর্টিকেলটি বুঝতে আপনার এখনো কোনো অসুবিধা থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment