বিটকয়েন কি – বিটকয়েন এর দাম ও কিভাবে কাজ করে

আজকাল ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহার প্রচুর পরিমাণে বেড়ে গেছে। যাদের মধ্যে বিটকয়েন হলো সবথেকে দামি এবং জনপ্রিয়। যার মাধ্যমে পেমেন্ট দেওয়া নেওয়া থেকে শুরু করে, ট্রেডিং ও করা হয়।

এই জন্য আজকের এই আর্টিকেল থেকে আমরা বিটকয়েন সম্পর্কে আলোচনা করব। যেখান থেকে আপনি বিটকয়েন কি ও কেন ব্যবহার করা হয়, বিটকয়েন কি জিনিস, বিটকয়েন ওয়ালেট কি – ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে জানতে পারবেন।

বর্তমান যুগে বিটকয়েন সম্পর্কে একটু আধটু জেনে রাখা সকলেরই দরকার। তাই নিচে থেকে এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর গুলো দেখে নিন।

বিটকয়েন কি?

বিটকয়েন হলো একটি ভার্চুয়াল মুদ্রা। এটি এমন একটি মুদ্রা যা কেউ দেখতে পায় না। কারণ এটি ভার্চুয়াল আকারে পাওয়া যায়।

এটিকে বিটকয়েনের ওয়ালেটে ইলেকট্রনিক আকারে সংরক্ষণ করা যায়। বর্তমানে এর চাহিদা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে।

ডলার, রূপো, সোনা ইত্যাদি অন্যান্য মুদ্রার মতো এটাও কেনা ও বেচা যায়। তবে শুধুমাত্র virual ভাবে।

বর্তমানে বিভিন্ন পেমেন্ট এক্সচেঞ্জ হিসাবে বিটকয়েনের ব্যাবহার করা হয়। এবং ট্রেডিং করে আয় করার জন্য ব্যাবসা হিসাবেও bitcoin ব্যাবহার করা হয়।

বিটকয়েন এর দাম

বিটকয়েনের দাম সর্বদা ওঠানামা করে। এই জন্য ক্রয় বিক্রয় করে অনেকে বিটকয়েন থেকে আয় করে থাকে।

বর্তমান সময়ে (16/01/2022) একটি বিটকয়েনের দাম ভারতীয় মুদ্রায় 32,26,254.08INR।

এবং বাংলাদেশি মুদ্রায় 3,691,625.45 টাকা।

বিটকয়েন এর ব্যবহার

বিটকয়েন বিভিন্ন অনলাইন লেনদেনে ব্যবহৃত হয়। এটি P2P নেটওয়ার্কে কাজ করে।

আজকাল অনলাইন ডেভেলপার, এনজিও অনলাইন লেনদেনের জন্য এটি ব্যবহার করে। অনলাইন পেমেন্ট যেমন আমরা ব্যাঙ্কে লেনদেন করি, তখন আমরা জানতে পারি যে – কাকে অর্থ প্রদান করা হয়েছে।

কিন্তু বিটকয়েনের রেকর্ড পাবলিক লেজারে নেই। যখন দুই ব্যক্তির মধ্যে আদান-প্রদান করা হচ্ছে তখন তা ট্র্যাক করা যায় না।

এর রেকর্ড মাত্র দুবার দেখা যায়, একবার যখন কেউ কেনাকাটা করেছে এবং দ্বিতীয়বার যখন কেউ bitcoin বিক্রি করছে।

বিটকয়েনের সুবিধা

  1. বিটকয়েন সারা বিশ্বের যে কোন জায়গায় এবং যেকোন ব্যক্তির কাছে পাঠানো যেতে পারে।
  2. বিটকয়েনের অ্যাকাউন্ট ব্লক করা হয় না, যেমন কখনও কখনও আমাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টগুলি ব্লক করা হয়।
  3. এটি আন্তর্জাতিক লেনদেনে ব্যবহার করা যেতে পারে এবং এটি লেনদেনের আলাদা ফি রয়েছে।
  4. এতে মধ্যস্বত্বভোগীর কোনো ভূমিকা নেই, যার কারণে কম খরচে লেনদেন হয়।
  5. এটিকে কোনো দেশে সংবিধিবদ্ধ স্বীকৃতি দেওয়া হয়নি, তাই এটি কোনো অতিরিক্ত খরচ ছাড়াই ব্যবহার করা যেতে পারে।

বিটকয়েনের অসুবিধা

  1. বিটকয়েনের সবচেয়ে বড় অসুবিধা হল যদি আপনার ডেটা হ্যাক হয়ে যায় এবং পুনরুদ্ধার করা না যায় বা আপনি যদি পাসওয়ার্ড ভুলে যান তাহলে আপনি আপনার সমস্ত বিটকয়েন হারাবেন।
  2. কোন কর্তৃপক্ষের কোন নিয়ন্ত্রণ নেই, যার কারণে এটি অবৈধ জিনিস কেনার জন্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

বিটকয়েন ওয়ালেট কি?

আমরা কেবলমাত্র ইলেকট্রনিকভাবে বিটকয়েন সংরক্ষণ করতে পারি এবং এটি রাখার জন্য একটি বিটকয়েন ওয়ালেট প্রয়োজন।

অনেক ধরনের বিটকয়েন ওয়ালেট রয়েছে যেমন ডেস্কটপ ওয়ালেট, মোবাইল ওয়ালেট, অনলাইন/ওয়েব-ভিত্তিক ওয়ালেট, হার্ডওয়্যার ওয়ালেট, এই ওয়ালেটগুলির মধ্যে একটি ব্যবহার করে আমাদের এটিতে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে।

এরপর আপনাকে একটি বিটকয়েনের অ্যাড্রেস দেওয়া হবে। যেই অ্যাড্রেসটি ব্যাবহার করে আপনি seller দের থেকে bitcoin কিনতে পারবেন।

অর্থাৎ, আপনি যদি বিটকয়েন কিনতে বা বিক্রি করতে চান, তাহলে আপনার একটি বিটকয়েন ওয়ালেট প্রয়োজন এবং এর পরে আপনি যদি বিটকয়েন বিক্রি করেন তার বিনিময়ে আপনি যে সমস্ত অর্থ পান, আপনি তা বিটকয়েন ওয়ালেটের মাধ্যমে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করতে পারেন।

Bitcoin কিভাবে কিনবেন?

সরাসরি কোনো বিটকয়েনের ওয়ালেট বানিয়ে সেখান থেকে নিজের দেশের মুদ্রার বিনিময় Bitcoin কিনতে পারেন।

আপনি যদি অনলাইনে কারো কাছে কোনো পণ্য বিক্রি করেন এবং সেই ক্রেতার কাছে যদি বিটকয়েন থাকে, তাহলে আপনি টাকার বিনিময়ে বিটকয়েন নেন, এক্ষেত্রে আপনি তাদের কাছে সেই পণ্য বিক্রি করবেন এবং আপনিও বিটকয়েন পাবেন। যা আপনার বিটকয়েন ওয়ালেটে জমা থাকবে।

এছাড়া হাই স্পিড প্রসেসরের কম্পিউটার ও হার্ডওয়্যার এর সাহায্যে mining করে bitcoin পেতে পারেন।

বিটকয়েন ওয়েবসাইট

এখানে এই ওয়েবসাইটগুলিতে, আপনি সহজেই বিটকয়েনের বর্তমান মূল্য দেখতে পারেন।

  • Wazirx
  • Unocoin
  • Zebpay

বিটকয়েন কিভাবে মাইনিং করে?

এর জন্য আমাদের একটি হাই স্পিড প্রসেসরের কম্পিউটার লাগবে যার হার্ডওয়্যারও ভালো হতে হবে। আমরা শুধুমাত্র অনলাইন পেমেন্টের জন্য বিটকয়েন ব্যবহার করি এবং যখন কেউ বিটকয়েন দিয়ে অর্থপ্রদান করে, তখন সেই লেনদেন যাচাই করা হয়।

যারা তাদের যাচাই করে, আমরা তাদের miners বলি এবং সেই miners দের উচ্চ কার্যকারিতা করার কম্পিউটার এবং জিপিইউ (GPU) রয়েছে এবং তারা এর মাধ্যমে লেনদেন যাচাই করে।

লেনদেনগুলো সঠিক কি না বা এতে কোনো ধরনের কারসাজি করা হয়েছে কিনা miners তা যাচাই করে।

এই যাচাইকরণের বিনিময়ে তারা পুরস্কার হিসেবে কিছু বিটকয়েন পায় এবং এভাবে নতুন বিটকয়েন বাজারে আসে।

এটা যে কেউ করতে পারেন, এর জন্য দরকার হাই স্পিড প্রসেসর যুক্ত কম্পিউটার, যা কেনা সবার বাজেটে থাকে না।

যেমন প্রতিটি দেশে মুদ্রা প্রিন্ট করার একটি সীমা রয়েছে যে আপনি এক বছরে এতগুলি নোট ছাপতে পারবেন, ঠিক একইভাবে বিটকয়েনেরও কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে যে 21 মিলিয়নের বেশি বিটকয়েন বাজারে আসতে পারে না। অর্থাৎ বিটকয়েনের সীমা মাত্র ২১ মিলিয়ন , এর চেয়ে বেশি বিটকয়েন আর কখনোই পাওয়া যাবে না।

এখন কথা হচ্ছে, প্রায় 13 মিলিয়ন বিটকয়েন বাজারে এসেছে এবং নতুন বিটকয়েনগুলি এখন mining এর মাধ্যমে আসবে।

বিটকয়েন কি ভারতে বৈধ?

বর্তমানে, দেশে ক্রিপ্টোকারেন্সি ব্যবহারে কোনো নিয়ন্ত্রণ বা কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। অর্থাৎ বর্তমানে ভারতে বিটকয়েন বৈধ।

বিটকয়েন কি বাংলাদেশে বৈধ?

বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ক্রিপ্টো কারেন্সির অনুমতি দেয় না। কারণ এটি দেশের আর্থিক বিধিবিধানের বিরুদ্ধে যায়।

বিদেশী মুদ্রায় লেনদেন, তাও বিকেন্দ্রীকৃত মুদ্রা যেমন ক্রিপ্টো, বাংলাদেশে আইন দ্বারা অনুমোদিত নয়। অর্থাৎ বিটকয়েন বাংলাদেশে অবৈধ।

বিটকয়েন কিভাবে কাজ করে?

বিটকয়েনের মাধ্যমে আলাদা-আলাদা অনলাইন লেনদেন করা হয়। এটি P2P নেটওয়ার্কের ফর্মুলায় কাজ করে। আজকাল অনলাইন ডেভেলপার, এনজিও গুলি অনলাইন লেনদেনের জন্য bitcoin ব্যবহার করে।

উপসংহার

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে বিটকয়েন কি ও কেন ব্যবহার করা হয়, বিটকয়েন সুবিধা ও অসুবিধা এবং বিটকয়েন কিভাবে কিনবেন – এই সম্পর্কে বিস্তারিত বুঝতে পেরেছেন। যদি বিটকয়েন সম্পর্কে আপনার এখনো কিছু জানার থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আমরা কমেন্ট এর মাধ্যমে আপনাকে সাহায্য করার চেষ্টা করব। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

শেয়ার করতে চান!

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

2 thoughts on “বিটকয়েন কি – বিটকয়েন এর দাম ও কিভাবে কাজ করে”

Leave a Comment