প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কি | Programming Language কত প্রকার

আজকের দিনে আমরা মোবাইল এবং কম্পিউটারের মধ্যে যে সকল গেমস, ওয়েবসাইট, অ্যাপ্লিকেশন এবং সফটওয়্যার চালিয়ে থাকি সেগুলি সমস্ত কিছু প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে। এবং একজন নির্দিষ্ট প্রোগ্রামার বা ডেভলপারের দ্বারা নির্দিষ্ট জিনিসটি তৈরি করা হয়ে থাকে।

তবে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে অনেক ব্যক্তির বিস্তারিত ধারণা নেই। এইজন্য আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর পাবেন।

যেমন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কি, প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কত প্রকার, প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ এর প্রজন্ম কয়টি ইত্যাদি। যদি আপনি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিতে চান তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি পড়তে থাকুন।

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কি?

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ হলো একটি কম্পিউটারের ভাষা, যেটি কোন প্রোগ্রামার বা ডেভলপার লিখে থাকে বা কোডিং করে থাকে। কম্পিউটার দ্বারা বিশেষ কোনো কাজ করার জন্য কোন প্রোগ্রামার কম্পিউটারকে নির্দেশ দেওয়ার একটি সেট তৈরি করে থাকে। এবং সেই সকল নির্দেশগুলি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ দ্বারা কোডিং করা হয়ে থাকে।

C, C ++, Java, Python এগুলি সবই প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ এর উদাহরণ। এগুলোর মাধ্যমে কোডিং করে কম্পিউটার প্রোগ্রাম তৈরি করা হয়।

সোজা ভাষায় বলতে গেলে, প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ হলো এমন একটি ভাষা যার মাধ্যমে কম্পিউটার কে বলা হয় তাকে কি করতে হবে। অর্থাৎ প্রোগ্রামের ল্যাঙ্গুয়েজ কম্পিউটার এবং প্রোগ্রামার এর মধ্যে কমিউনিকেশন তৈরি করে।

যেকোনো ধরনের সফটওয়্যার, এপ্লিকেশন, গেম এবং ওয়েবসাইট প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর মাধ্যমে বানানো হয়ে থাকে।

একজন নির্দিষ্ট ডেভলপার বা প্রোগ্রামার নির্দিষ্ট প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যবহার করে, কোডিং এর মাধ্যমে বিভিন্ন সফটওয়্যার, এপ্লিকেশন, গেম এবং ওয়েবসাইট বানিয়ে থাকে। আলাদা আলাদা জিনিস তৈরি করার জন্য আলাদা আলাদা ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর ব্যবহার করা হয়।

এটিও জেনে নিন -  জাভাস্ক্রিপ্ট কি ও কেন ব্যবহার করা হয়?

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ছাড়া কম্পিউটার কে নির্দেশ দেওয়া সম্ভব নয়। এবং নির্দেশ ছাড়া কম্পিউটার কোন কাজ করতে পারবে না। বিভিন্ন ধরনের নির্দেশ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রাম তৈরি করা হয়।

Programming Language এর জনক কে?

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একজন কবি লর্ড বায়নারের কন্যা অ্যাডা লাভলেস এর মাথায় সব থেকে প্রথম প্রোগ্রামিং এর ধারণা আসে।

তিনি প্রথম প্রোগ্রামিং ভাষার কথা নিয়ে আসার কারণে, তাকেই প্রোগ্রামিং ভাষার জনক বা প্রবর্তক বলা হয়।

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কাকে বলে?

যে নির্দিষ্ট ল্যাঙ্গুয়েজ বা ভাষা ব্যবহার করে কোন প্রোগ্রামার বা ডেভলপার কোন প্রোগ্রাম তৈরি করে থাকে তাকেই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ বলে।

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে একজন নির্দিষ্ট প্রোগ্রামার বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ্লিকেশন, গেমস, সফটওয়্যার এবং ওয়েবসাইট বানিয়ে থাকে।

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কত প্রকার?

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ তিন ধরনের হয়ে থাকে। সেগুলি হল –

  1. লো লেভেল প্রোগ্রামিং ভাষা
  2. হাই লেভেল প্রোগ্রামিং ভাষা এবং
  3. মিডিল লেভেল প্রোগ্রামিং ভাষা।

এই তিন ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে নিচে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

১. Low-Level Language

Low-Level Language সেই language বা ভাষা যেটি কম্পিউটার বুঝতে পারে। কম্পিউটার শুধুমাত্র বায়নারি (০, ১) ডিজিট বুঝতে পারে। Low-Level Language এর মাধ্যমে কোন প্রোগ্রামিং তৈরি করার সময় শুধুমাত্র বাইনারি নাম্বার নিয়ে প্রোগ্রামিং তৈরি করতে হয়। এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ নিয়ে প্রোগ্রামিং তৈরি করার সময় নির্দিষ্ট প্রোগ্রামার বা ডেভলপারকে Low-Level Language সম্পর্কে দক্ষ হতে হয়।

এবং এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ এর মাধ্যমে প্রোগ্রামিং তৈরি করার জন্য নির্দিষ্ট প্রোগ্রামকে কনভার্ট করার প্রয়োজন হয় না। কম্পিউটার সরাসরি এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ এর উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট আদেশ পালন করে।

২. High-level Language

ইউজার ফ্রেন্ডলি অ্যাপ্লিকেশন এবং ওয়েবসাইট বানানোর জন্য এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করা হয়। যে কোন প্রোগ্রামার এবং ডেভলপার খুব সহজে এই ধরনের ভাষা বুঝতে, লিখতে এবং পড়তে পারে।

এটিও জেনে নিন -  C++ কি, এর বৈশিষ্ট্য এবং জনক কে?

আমরা আগে জেনেছি যে কম্পিউটার শুধুমাত্র লো লেভেল ল্যাঙ্গুয়েজ বুঝতে পারে। কম্পিউটার সরাসরি হাই লেভেল ভাষা বুঝতে পারে না। এইজন্য হাই লেভেল ল্যাঙ্গুয়েজকে low লেভেল ল্যাঙ্গুয়েজ এ ট্রান্সলেট করার জন্য কম্পাইলার বা ইন্টারপিটারের প্রয়োজন হয়।

কম্পাইলারের মাধ্যমে হাই লেভেল ল্যাংগুয়েজ কে ট্রান্সলেট করার পর সেটি low লেভেল ল্যাঙ্গুয়েজ বা বাইনারি ডিজিটে পরিবর্তিত হয়ে যায়। এবং এরপর কম্পিউটার সেটি সহজেই বুঝতে পারে।

কিছু হাই লেভেল প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ এর উদাহরণ হল Python, Java, JavaScript, PHP, C# ইত্যাদি।

৩. Middle-level Language

এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যবহার করে লো লেভেল এবং হাই লেভেল উভয় পক্ষের language কে নিয়ে একসাথে প্রোগ্রামিং তৈরি করা যায়। অর্থাৎ এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ হাই লেভেল এবং লো লেভেল, উভয় পক্ষেরই যাবতীয় ফিচারস কে সাপোর্ট করে। এবং এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ খুবই ইউজার ফ্রেন্ডলী।

C এবং C++ এগুলি হল মিডিল লেভেল প্রোগ্রামিং ভাষার উদাহরণ।

সব থেকে বেশি ব্যবহৃত প্রোগ্রামিং ভাষা

Python, Java, C, C++, C#, JavaScript, R, PHP, Go, Ruby এই দশটি ভাষা প্রোগ্রামিং তৈরি করতে সবথেকে বেশি ব্যবহৃত হয়।

নির্দিষ্ট গেমস, অ্যাপ্লিকেশন, সফটওয়্যার এবং ওয়েবসাইট ইত্যাদি বানানোর জন্য আলাদা আলাদা প্রোগ্রামিং ভাষার ব্যবহার করা হয়।

প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ এর প্রজন্ম কয়টি?

বর্তমান দিন পর্যন্ত প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর প্রজন্ম পাঁচটি। সেগুলি হল –

  • প্রথম প্রজন্ম
  • দ্বিতীয় প্রজন্ম
  • তৃতীয় প্রজন্ম
  • চতুর্থ প্রজন্ম এবং
  • পঞ্চম প্রজন্ম।

Programming language কিভাবে শিখবেন?

যদি আপনি একজন প্রোগ্রামার বা ডেভলপার হতে চান তাহলে আপনিও প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শিখতে পারেন। এর জন্য আপনি অনলাইন বা অনলাইন মারফত শিক্ষা লাভ করতে পারেন।

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শেখার জন্য বিভিন্ন ধরনের কম্পিউটার সেন্টার এবং ইনস্টিটিউট আছে। সেখানে গিয়ে আপনি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে জ্ঞান আহরণ করতে পারেন।

এছাড়া আপনি অনলাইন মারফত শিখতে হলে বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর বই কেন পড়তে পারেন বা ইউটিউব ভিডিও দেখে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে জ্ঞান নিতে পারেন।

এটিও জেনে নিন -  CSS কি - এর কাজ ও কিভাবে শিখবেন?

এবং ভালোভাবে প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ সম্পর্কে দক্ষতা অর্জন করার পর আপনি ফ্রিল্যান্সিং হিসাবে বা কন্টাক্ট সাইন করে বিভিন্ন প্রোগ্রাম তৈরি করতে পারেন।

উপসংহার

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেল থেকে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কাকে বলে – এই সম্পর্কে আপনি বিস্তারিত ইনফরমেশন পেয়ে গেছেন। যদি আপনি একজন প্রোগ্রামার হতে চান তাহলে আপনিও প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ শিখতে পারেন। বর্তমান দিনে বিভিন্ন ধরনের নতুন নতুন প্রোগ্রাম তৈরি করা হচ্ছে। এবং এর জন্য একজন প্রোগ্রামার বা ডেভলপারের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment