প্রোগ্রামিং কি এবং কেন শিখবেন?

আজকের দিনে কম্পিউটারে বেশিরভাগ কাজকর্ম করা হয়ে থাকে। তাই কম্পিউটারকে নির্দেশ দিতে বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রাম এর ব্যবহার করা হয়।

এইজন্য আজকেই আর্টিকেল থেকে আমরা প্রোগ্রামিং সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। যেখান থেকে আপনি প্রোগ্রামিং কি এবং কেন শিখবেন, প্রোগ্রাম কাকে বলে, প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কত প্রকার এবং প্রোগ্রামিং এর কাজ কি – এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন।

যদি আপনিও প্রোগ্রামিং শিখতে চান এবং প্রোগ্রামিং সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে আজকের আর্টিকেলটি পড়ে নিন।

প্রোগ্রামিং কি?

কম্পিউটারকে দিয়ে বিভিন্ন কাজ করানোর জন্য তাকে বিভিন্ন ধরনের নির্দেশ দিতে হয়। এইজন্য কম্পিউটারের সাহায্যে কোন বিশেষ কাজ করবার জন্য, প্রোগ্রামিং ভাষায় তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

এই নির্দেশের সমষ্টিকে বলা হয় প্রোগ্রামিং

মানুষ বিভিন্ন কাজ এবং নির্দেশ পালনের জন্য নির্দিষ্ট ভাষা শেখে। ঠিক তেমনি কম্পিউটারকে নির্দেশ দেওয়ার জন্য প্রোগ্রামিং ভাষার ব্যাবহার করা হয়।

প্রোগ্রামিং কাকে বলে?

কম্পিউটারকে দিয়ে নির্দিষ্ট কাজ করানোর জন্য, অনেকগুলি প্রোগ্রাম কে একত্রে যুক্ত করে কম্পিউটারকে instructions দেওয়া হয়। এই সমস্ত প্রোগ্রাম গুলিকে একত্রে প্রোগ্রামিং বলে।

বিশেষ বিশেষ প্রোগ্রামিং এর জন্য আলাদা আলাদা programing language ব্যাবহার করা হয়। এবং একজন ভালো programmer ভালো মানের programing তৈরি করতে পারে।

কম্পিউটার প্রোগ্রামিং বলতে কি বুঝায়?

কম্পিউটার বিনা নির্দেশে কোনো কাজ করতে পারেনা। তাই তাকে নির্দিষ্ট কাজ কিভাবে করতে হয় এবং কি কাজ করতে হবে এই সম্পর্কে নির্দেশ দেওয়ার প্রয়োজন পড়ে।

এই জন্য প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যাবহার করে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন এবং সফটওয়্যার বানিয়ে, সেগুলির সাহায্যে কম্পিউটার কে নির্দিষ্ট কাজ করার নির্দেশ দেওয়া হয়। এবং প্রোগ্রামিং এর নির্দেশমতো কম্পিউটার সেই কাজ গুলো পালন করে।

প্রোগ্রামিং এর জনক কে?

অগাস্টা অ্যাডা বা লাভলেসের কাউন্টেস প্রথম কম্পিউটার প্রোগ্রামিং এর ধারণা টি নিয়ে আসেন। তাই অগাস্টা অ্যাডাকেই প্রোগ্রামিং এর জনক হিসেবে মানা হয়।

তিনি ১০ ডিসেম্বর ১৮১৫ সালে লন্ডনে জন্মগ্রহণ করেন। এবং ২৭ নভেম্বর ১৮৫২ সালে মাত্র ৩৬ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

প্রোগ্রামিং এর কাজ কি?

কম্পিউটারের সাহায্যে কোনো সমস্যার সমাধান পাওয়ার জন্য প্রোগ্রামিং এর ব্যাবহার করা হয়। যার মধ্যে অনেকগুলি instruction একত্রে যুক্ত করা থাকে। যার মাধ্যমে কম্পিউটারকে কি করতে হবে, এটা সহজেই সে বুঝতে পারে এবং instruction অনুযায়ী কাজ করে।

অর্থাৎ প্রোগ্রামিং এর কাজ হলো কম্পিউটারকে বিভিন্ন কাজের নির্দেশ দেওয়া।

প্রোগ্রামিং এর Step

প্রোগ্রামিং করার চারটি গুরুত্বপূর্ণ স্টেপ রয়েছে। বেশিরভাগ প্রোগ্রামার এই চারটি স্টেপ অনুসরণ করে প্রোগ্রামিং তৈরি করে থাকেন।

১. সমস্যা বোঝা

একজন প্রোগ্রামার এর সবথেকে যে জিনিসটি করতে হবে সেটি হল সমস্যাটা খুঁজে বের করা। অর্থাৎ কোন সমস্যার কারণে প্রোগ্রাম তৈরি করতে হবে সেটা দেখা।

২. সমাধান খোঁজা

সমস্যা খোঁজার পর এর সমাধান কি এটা খুঁজে বের করতে হবে।

৩. কোডিং করা

এরপর সমাধানের হিসাব অনুযায়ী কোডিং করতে হবে। যার মাধ্যমে নির্দিষ্ট সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। কোডিং করার জন্য নির্দিষ্ট প্রোগ্রামার, যে প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজে দক্ষ, সেই ল্যাঙ্গুয়েজের মাধ্যমে কোডিং করতে হবে।

৪. টেস্টিং করা

কোডিং সম্পন্ন করার পর সম্পূর্ণ প্রোগ্রামিং টি test করতে হয়। নির্দিষ্ট প্রোগ্রামিং টি কোন ধরনের রেজাল্ট দিচ্ছে সেটি analysis করতে হয়। যার থেকে সমস্যাটির সমাধান হয়েছে কিনা এটা স্পষ্ট হয়ে যায়।

প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ কত প্রকার?

আমরা জানি যে প্রোগ্রামিং তৈরি করার জন্য বিভিন্ন ধরনের প্রোগ্রামিং ভাষা ব্যবহার করা হয়। তাই এখান থেকে প্রোগ্রামিং ভাষা কত প্রকার এই সম্পর্কে বিস্তারিত দেওয়া হলো।

প্রগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ তিন প্রকার। সেগুলি হল –

  1. Machine language
  2. Assembly language
  3. High level language

Machine language

এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ bionary digit (0,1) এ হয়ে থাকে। মেশিন ল্যাঙ্গুয়েজ কম্পিউটার খুব সহজেই বুঝতে পারে। এটি হলো ফাস্ট জেনারেশন এর ল্যাংগুয়েজ। মানুষের পক্ষে এই language বোঝা কঠিন।

Assembly language

এটি হল সেকেন্ড জেনারেশন এর ল্যাংগুয়েজ। এখানে bionary digit এর পরিবর্তে keywords এর ব্যবহার হয়। এই ল্যাঙ্গুয়েজকে লো লেভেলের ল্যাঙ্গুয়েজ হিসাবে গণ্য করা হয়।

Assembly language কে bionary digit বা Machine language এ কনভার্ট করার জন্য Assembler এর প্রয়োজন পড়ে। কারণ কম্পিউটার শুধুমাত্র bionary digit বুঝতে পারে।

High level language

English keywords এবং symbol ব্যাবহার করার কারণে, এই ল্যাংগুয়েজ মানুষের পক্ষে বোঝা খুব সহজ।

High level language কে machine code এ কনভার্ট করার জন্য Compiler এর প্রয়োজন পড়ে।

C++, Java, PHP এগুলো হলো হাই লেভেল ল্যাংগুয়েজ এর উদাহরণ।

প্রোগ্রামিং এর মাধ্যমে কি তৈরি করা যায়?

প্রোগ্রামিং এর মাধ্যমে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন, গেমস, সফটওয়্যার ইত্যাদি তৈরি করা যায়।

কিছু জনপ্রিয় programming language

প্রোগ্রামিং তৈরি করার জন্য যে সকল ল্যাঙ্গুয়েজগুলি সবথেকে বেশি জনপ্রিয় সেগুলি হল –

  • Python
  • JavaScript
  • Java
  • PHP
  • C++
  • SQL
  • Kotlin
  • Scala
  • ইত্যাদি।

প্রোগ্রামিং শিখে কি হবে?

  1. বর্তমান সময়ে এটি আপনাকে একটি কাজের গ্যারান্টি দেয়
  2. আপনি বাড়িতে বসেই কাজ করতে পারবেন
  3. আপনি কম্পিউটারের যেকোন প্রোগ্রাম তৈরী করতে পারবেন
  4. সফটওয়্যার কিভাবে কাজ করে এই সম্পর্কে ধারনা আসবে
  5. উচ্চ আয়ের সম্ভাবনা আছে
  6. Technical Skills সম্পর্কে জ্ঞান আসবে
  7. নিজের ব্যবসা শুরু করতে পারবেন
  8. সমস্যা সমাধান সম্পর্কে দক্ষতা আসবে।

প্রোগ্রামিং শেখার ওয়েবসাইট

প্রোগ্রামিং শেখার জন্য আপনি এই সমস্ত ওয়েবসাইট গুলি থেকে বিনামূল্যে প্রোগ্রামিং শিখতে পারেন।

  • HackerRank
  • Codementor
  • GeeksforGeeks
  • W3schools
  • Codecademy
  • freeCodeCamp
  • HackerEarth

প্রোগ্রামিং কিভাবে শিখবেন?

প্রোগ্রামিং শেখার জন্য আপনি কোন ল্যাঙ্গুয়েজে প্রোগ্রামিং তৈরি করতে চান সেটি আগে নির্বাচন করুন। এরপর আপনার পছন্দের ভাষা টি বেছে নিয়ে সেটি সম্পর্কে রিসার্চ করুন।

এরপর আপনি উপরে দেওয়া ওয়েবসাইটগুলো থেকে বিনামূল্যে আপনার নির্বাচন করা নির্দিষ্ট প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে শিখতে পারেন।

যদি আপনি প্রোগ্রামিং এর কোর্স করতে চান তাহলে কোন ভাল কলেজ থেকে ডিগ্রীও নিতে পারেন।

এছাড়া আপনি ইউটিউব থেকে বিভিন্ন টিউটরিয়াল ভিডিও দেখে একদম বিনামূল্যে প্রোগ্রামিং শিখতে পারেন।

উপসংহার

আশা করি আজকের এই ইনফরমেশন থেকে প্রোগ্রামিং কি, প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কত প্রকার এবং প্রোগ্রামিং এর কাজ কি এই সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। যদি আর্টিকেলটি সম্পর্কে এখনো কোনো প্রশ্ন থেকে থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment