পুরুষ কাকে বলে | পুরুষ কয় প্রকার ও কী কী

ব্যাকরণের পুরুষ শব্দটি একটি পারিভাষিক শব্দ। এখানে লিঙ্গ ভেদে পুরুষ শব্দটির ব্যবহার হয় না। যাকে উদ্দেশ্য করে কোন কাজ বা ক্রিয়া সম্পাদিত হয় ব্যাকরণে সেটি হলো পুরুষ।

আজকের এই আর্টিকেল থেকে আপনি পুরুষ সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর পাবেন। যেমন পুরুষ কাকে বলে, পুরুষ কয় প্রকার ও কী কী, প্রথম, উত্তম, এবং মধ্যম পুরুষ কাকে বলে ইত্যাদি।

যদি আপনিও ব্যাকরণের পুরুষ সম্পর্কে এই সকল ইনফরমেশন গুলো পেতে চান তাহলে আর্টিকেলটি পড়তে শুরু করুন।

পুরুষ কাকে বলে?

ক্রিয়ার কর্তা এবং কর্মের বিশেষ ভাব রূপকে পুরুষ বলে।

অন্য ভাবে বলতে গেলে – যাকে অবলম্বন করে ক্রিয়া সম্পাদিত হয়, তাকে পুরুষ বলে।

পুরুষ বলতে আমরা সাধারণত পুরুষ জাতীয় প্রাণী বুঝি। কিন্তু ব্যাকরণে পুরুষ শব্দের একটি আলাদা মানে আছে।

যে কোন ভাষা ব্যবহার করার সময় নির্দিষ্ট বিশেষ্য পদটি কোন না কোন পুরুষের অন্তর্গত। অর্থাৎ কর্তা এবং ভাব অনুযায়ী পুরুষ বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। যেটা আমরা নিচে বিস্তারিত আলোচনা করব।

পুরুষ কয় প্রকার ও কী কী?

পুরুষ এর প্রকারভেদ – বক্তা এবং শ্রোতা অনুযায়ী পুরুষ তিন প্রকারের হয়ে থাকে। এগুলি হলো

  1. প্রথম পুরুষ
  2. উত্তম পুরুষ
  3. মধ্যম পুরুষ

1. প্রথম পুরুষ কাকে বলে?

যখন বক্তা সামনে অনুপস্থিত থাকা সত্বেও কোন ব্যক্তির সম্পর্কে কোন কিছু বলে এবং তাকে সম্বোধন করার জন্য যে সর্বনাম পদগুলি ব্যবহার করা হয় সেটি হলো প্রথম পুরুষ।

অর্থাৎ, বাক্যের বক্তা যে বিশেষ্য বা সর্বনামের দ্বারা বক্তা ও শ্রোতার বাইরে অন্য কাউকে নির্দেশ করে, তাকে প্রথম পুরুষ বলে।

প্রথম পুরুষ আবার দুই ধরনের হয়ে থাকে।

১. সাধারণ প্রথম পুরুষ

সাধারণ বা যে কোন ব্যক্তির ক্ষেত্রে এই ধরনের সর্বনাম পদগুলি ব্যবহার করা হয়। সাধারণ প্রথম পুরুষ এর উদাহরণ হল সে, তিনি, তাহারা

২. সম্মানসূচক প্রথম পুরুষ

কোন সম্মানীয় ব্যক্তি ক্ষেত্রের সম্মানজনকভাবে বা সম্মান এর দিয়ে কথা বলার সময় এ ধরনের সর্বনাম পদগুলি ব্যবহার করা হয়।

সম্মানসূচক প্রথম পুরুষ এর উদাহরণ হল তিনি, তারা, তাহারা

2. উত্তম পুরুষ কাকে বলে?

কোন বক্তব্য রাখার সময় বক্তা যখন নিজেকে সম্মোধন করতে, কোন সর্বনাম পদ ব্যবহার করে এই সকল বিশেষ্য পদ গুলি হল উত্তম পুরুষ।

অর্থাৎ ক্রিয়ার কর্তা নিজেকে বুঝাতে যে সর্বনাম ব্যবহার করে, তাকে উত্তম পুরুষ বলে।

অর্থাৎ কোন বাক্যে বক্তা নিজে সর্বদাই উত্তম পুরুষ হয়ে থাকে।

উত্তম পুরুষ এর উদাহরণ হল আমি, আমরা, আমাদের ইত্যাদি।

3. মধ্যম পুরুষ কাকে বলে?

কোন ব্যক্তিকে কিছু বলার সময় বক্তা নির্দিষ্ট ব্যক্তিকে, যে সর্বনাম পদ গুলির সাহায্যে সম্মোধন করে সেগুলি হল মধ্যম পুরুষ।

অর্থাৎ, বক্তা যার সাথে কথা বলে তাকে বুঝাতে যে সর্বনাম ব্যবহার করে, তাকে মধ্যম পুরুষ বলে।

মধ্যম পুরুষের উদাহরণ হল তুমি, তুই, তোমাদের, আপনি, আপনাদের, তোমরা ইত্যাদি।

মধ্যম পুরুষ আবার তিন প্রকারের হয়ে থাকে। এখানে তিন প্রকারের মধ্যম পুরুষের উদাহরণ দেখলে আপনি বুঝে যাবেন।

১. সাধারণ মধ্যম পুরুষ

তুমি, তোমরা, তোমাকে ইত্যাদি

২. সম্মানসূচক মধ্যম পুরুষ

আপনি, আপনারা, আপনাকে ইত্যাদি।

৩. অবজ্ঞাসূচক মধ্যম পুরুষ

তুই, তোরা, তোকে ইত্যাদি।

প্রথম পুরুষ এর উদাহরণ

  • সে আমাকে খবর দিয়েছিল
  • তিনি আমাকে খুব ভালোবাসেন
  • তাদের সাথে আমার কথা হয়েছিল

উত্তম পুরুষ এর উদাহরণ

  • আমি সাহায্য করার চেষ্টা করব
  • আমি কাজটা করে দেবো
  • আমরা তোমার পাশে আছি

মধ্যম পুরুষ এর উদাহরণ

  • তুমি আজকে থেকে যাও
  • আপনি আমাকে একটু সময় দিন
  • তোদের বাড়িতে কি কুকুর আছে

উপসংহার

আশাকরি উপরের ইনফর্মেশন থেকে পুরুষ কাকে বলে, পুরুষ এর প্রকারভেদ, পুরুষ কয় প্রকার ও কী কী এই সকল বিষয়ে বিস্তারিত বুঝতে পেরেছেন। যদি এখনও পুরুষ সম্পর্কে বুঝতে আপনার কোন অসুবিধা হয় তাহলে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। আমার কমেন্টের মাধ্যমে আপনাকে পুরুষ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত বুঝানোর চেষ্টা করব। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

1 thought on “পুরুষ কাকে বলে | পুরুষ কয় প্রকার ও কী কী”

  1. খুব ভাল লেগেছে আপনার লেখা। আরেকটু সহজ করে কি বোঝাবেন বা লিখবেন যে, শিক্ষক, বড় ভাই, নানা, ছেলেরা কোন পুরুষ এর মধ্যে পরে। আমি মেলাতে পারছিনা। ভাল থাকবেন আর আমাদের সাহায্য করবেন

    Reply

Leave a Comment