নোটপ্যাড কি – নোটপ্যাড এর কাজ ও কিভাবে খুলবেন?

অনেকেই কম্পিউটারের মধ্যে নোটপ্যাড নিয়ে কাজ করে থাকেন। যার মাধ্যমে খুব সহজেই যেকোনো জিনিস লিখে নোট করে রাখা যায়। তবে অনেক কম্পিউটার ব্যবহারকারীর নোটপ্যাড নিয়ে অনেক প্রশ্ন রয়েছে।

যেমন – নোটপ্যাড কি বা কাকে বলে, নোটপ্যাড এর কাজ, নোটপ্যাড কিভাবে খুলে, নোটপ্যাড কি ধরনের সফটওয়্যার ইত্যাদি।

যদি আপনার মনেও নোটপ্যাড সম্পর্কে এই সমস্ত প্রশ্ন গুলি থাকে, তাহলে আজকের আর্টিকেল থেকে সমস্ত প্রশ্নগুলির উত্তর পেয়ে যাবেন। তাই চলুন একটি একটি করে উত্তর গুলি জেনে নেওয়া যাক।

নোটপ্যাড কি?

নোটপ্যাড মাইক্রোসফ্ট কোম্পানি দ্বারা তৈরি একটি Text Editor Program। নোটপ্যাড ব্যবহারকারীদের Plain টেক্সট ফাইল খুলতে, পড়তে এবং তৈরি করতে সাহায্য করে। নোটপ্যাডে তৈরি করা টেক্সট ফাইল ‘.txt’ এক্সটেনশনের মাধ্যমে, কম্পিউটারের মধ্যে সংরক্ষিত হয়।

নোটপ্যাড কি - নোটপ্যাড এর কাজ ও কিভাবে খুলবেন?

Richard Brodie নোটপ্যাড তৈরি করেছিলেন এবং প্রথম নোটপ্যাড 1983 সালে Release করা হয়।

নোটপ্যাডে Bold, Italic, Font Size ব্যবহার করে বিভিন্ন text লেখা যায়।

এটি Microsoft Windows অপারেটিং সিস্টেম এর মধ্যেই থাকে। এটি আলাদা করে, ডাউনলোড এবং ইনস্টল করার কোন প্রয়োজন নেই।

নোটপ্যাড কাকে বলে?

কম্পিউটারে মাইক্রোসফ্ট কোম্পানি দ্বারা তৈরি যে Text Editor Program টি; টেক্সট ফাইল খুলতে, পড়তে এবং তৈরি করতে ব্যাবহার করা হয়, তাকে নোটপ্যাড বলে।

নোটপ্যাডের ব্যাবহার – নোটপ্যাড এর কাজ

নোটপ্যাড যে সকল কাজের জন্য ব্যাবহার করা হয় সেগুলি হলো –

  1. আপনি ওয়েব পেজ তৈরি করতে নোটপ্যাড ব্যবহার করতে পারেন।
  2. আপনি একটি ডায়েরি হিসাবে নোটপ্যাড ব্যবহার করতে পারেন।
  3. আপনি নোটপ্যাড ব্যবহার করে অধ্যয়নের সময় নোট প্রস্তুত করতে পারেন।
  4. টেক্সট ফাইল তৈরি করতে নোটপ্যাড ব্যবহার করা যেতে পারে।

Notepad কিভাবে খুলবেন?

কম্পিউটার নোটপ্যাড খোলার জন্য আপনি Start মেনুতে ক্লিক করে কিবোর্ড থেকে R প্রেস করুন। এরপর আপনার সামনে Notepad নামক একটি অপশন আসবে।

Notepad লেখাটির উপর ক্লিক করা মাত্র নোটপ্যাড খুলে যাবে।

নোটপ্যাড খোলার আরেকটি পদ্ধতি হলো –

কিবোর্ড থেকে প্রথমে windows key প্রেস করুন। এরপর কীবোর্ডের সাহায্যে Notepad লিখুন। নোটপ্যাড লেখার পর Enter প্রেস করুন।

নোটপ্যাড এর বিভিন্ন অংশ

কাজের ভিত্তিতে নোটপ্যাডের বিভিন্ন অংশ রয়েছে। নোটপ্যাড এর বিভিন্ন অংশ গুলি সম্পর্কে জেনে নিন।

নোটপ্যাড কি - নোটপ্যাড এর কাজ ও কিভাবে খুলবেন?

১. Title bar

নোটপ্যাডের উপরের অংশটিকে টাইটেল বার বলা হয়। নোটপ্যাড খুললেই টাইটেল বারে শিরোনামহীন-নোটপ্যাড লেখা দেখতে পাবেন।

সেভ ফাইল ওপেন করলে টাইটেল বারে শিরোনামহীনের পরিবর্তে আপনার ফাইলের নাম দেখতে পাবেন।

আপনি যদি টাইটেল বারে ডান পাশের কোণে লক্ষ্য করেন, আপনি তিনটি বোতাম দেখতে পাবেন, যার প্রথম নামটি মিনিমাইজ বোতাম, এর মাধ্যমে আপনি টাস্কবারে নোটপ্যাড লুকিয়ে রাখতে পারেন।

অন্য নামটি ম্যাক্সিমাইজ বা রিস্টোর বোতাম এবং এর মাধ্যমে আমরা নোটপ্যাডের সাইজ বাড়াতে বা কমাতে পারে এবং তৃতীয় নাম হল ক্লোজ বাটন যার মাধ্যমে নোটপ্যাড বন্ধ করা যায়।

২. Menu bar

টাইটেল বারের নীচের অংশটিকে মেনু বার বলা হয়, যেখানে নোটপ্যাডের সমস্ত মেনু রয়েছে। এখানে নোটপ্যাডের সব মেনু (ফাইল, এডিট, ফরম্যাট, ভিউ, হেল্প) এই অংশে অবস্থিত।

৩. Text area (Working Area)

মেনু বারের নীচের অংশে যে ফাঁকা অংশ থাকে, তাকে টেক্সট এরিয়া বলে। এতে আমরা লেখা লিখি করে থাকি। এই অংশে, আমরা সমস্ত পাঠ্য সম্পাদনা করি এবং এটি নোটপ্যাডের বৃহত্তম ক্ষেত্র।

৪. Status bar

নোটপ্যাডে Text area এর সর্বনিম্ন অংশটিকে স্ট্যাটাস বার বলা হয়, এটি কার্সারের অবস্থান দেখায়।

নোটপ্যাড কি ধরনের সফটওয়্যার?

নোটপ্যাড হলো সিস্টেম সফটওয়্যার। কারণ এটি প্রথম থেকেই কম্পিউটারের মধ্যেই থাকে। আলাদা করে নোটপ্যাডকে ইনস্টল করার প্রয়োজন পড়ে না।

নোটপ্যাড প্লাস প্লাস ডাউনলোড

বেসিক নোটপ্যাড কম্পিউটারে ইনস্টল করা থাকে। যেটি খুব সাধারণ কাজের জন্য ব্যাবহার করা হয়। যদি আপনি নোটপ্যাড এর সাহায্যে coding করতে চান তাহলে আরও ফিচারস পাওয়ার জন্য আপনাকে নোটপ্যাড প্লাস প্লাস ডাউনলোড করতে হবে।

এই version টি ডাউনলোড করার জন্য, আপনাকে https://notepad-plus-plus.org/downloads/ ওয়েবসাইটটিতে যেতে হবে।

এখান থেকে আপনি বিনামূল্যে আপনার কম্পিউটারের জন্য নোটপ্যাড প্লাস প্লাস ডাউনলোড করতে পারবেন।

উপসংহার

আশা করি আজকের আর্টিকেল থেকে নোটপ্যাড কি বা কাকে বলে, নোটপ্যাড এর কাজ, নোটপ্যাড কিভাবে খুলে এবং নোটপ্যাড কি ধরনের সফটওয়্যার – এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি এখনও notepad সম্পর্কে কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন। ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

শেয়ার করতে চান!

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment