টুইটার কি | টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম

আজকের দিনের বেশিরভাগ ব্যক্তি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে থাকে। বর্তমানে অসংখ্য সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ্লিকেশন এবং ওয়েবসাইট রয়েছে। বিভিন্ন ব্যক্তি তাদের বিভিন্ন উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে। তেমনই একটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এর নাম হলো টুইটার। যেটি সাধারণত বড় ধরনের ব্যক্তিরা ব্যবহার করে থাকে।

আজকের এই আর্টিকেল থেকে আমরা টুইটার সম্পর্কে বিভিন্ন বিষয়ে জানব। যেমন টুইটার কি, টুইটার কে আবিষ্কার করেন, টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম, টুইটার কিভাবে ব্যবহার করতে হয় ইত্যাদি। যদি আপনার টুইটার ব্যবহার করতে চান তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাকে সাহায্য করবে। তাই দেরি না করে টুইটার সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিন।

টুইটার কি?

টুইটার হল ফেসবুকের মতোই এক ধরনের সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট। টুইটারের মধ্যে অ্যাকাউন্ট বানিয়ে আপনি বিভিন্ন অন্যান্য টুইটার ইউজারদের সাথে কানেক্ট হতে পারবেন।

পৃথিবীর সমস্ত জনপ্রিয় ব্যক্তিরা টুইটার ব্যবহার করে থাকে। টুইটার এর মধ্যে বিভিন্ন ইনফরমেশন শেয়ার করাকে টুইট বলা হয়ে থাকে। ২১ মার্চ, ২০০৬ সালে টুইটার প্রতিষ্ঠিত হয়।

টুইটারের মাধ্যমে টুইট করার জন্য আপনি শুধু মাত্র 140 টি শব্দ লিখতে পারবেন। আপনি যা কিছুই ইনফরমেশন শেয়ার করতে চান আপনাকে এই 140 টি শব্দের মধ্যে করতে হবে। তবে আপনি একের বেশি টুইট করতে পারেন।

বর্তমান সময়ের সব থেকে বেশি চর্চা জনিত বিষয়গুলি আপনি টুইটার এর মাধ্যমে পেতে পারবেন।

সমস্ত বড় বড় কোম্পানির প্রোফাইল এবং বিভিন্ন কোম্পানি ও ব্যবসাদারদের অ্যাকাউন্টগুলি টুইটারের মাধ্যমে ব্যবহার করা হয়। এই কারণে আপনি যেকোন বিষয়ে ইনফরমেশন পাওয়ার জন্য টুইটার ব্যবহার করতে পারেন।

টুইটার কাকে বলে?

যে সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্কিং সাইটের মাধ্যমে টুইট করা হয়ে থাকে তাকে টুইটার বলে।

টুইটারের মাধ্যমে টুইট করার জন্য প্রথমে টুইটার একাউন্ট বানাতে হবে এবং নির্দিষ্ট টুইট বিভিন্ন ব্যক্তিদের সাথে শেয়ার করার জন্য তাদের সাথে কানেক্ট হতে হবে।

টুইট কাকে বলে?

টুইটারের বার্তাগুলোকে (Messages) টুইট বলা হয়ে থাকে। অর্থাৎ যে সকল বার্তা টুইটারের মাধ্যমে লিখে বিভিন্ন ব্যক্তিদের সাথে শেয়ার করা হয় সেগুলি হল টুইট। এক একটি টুইট ম্যাক্সিমাম 140 শব্দের হয়ে থাকে।

টুইটার এর কাজ কি?

টুইটার এর মাধ্যমে বিভিন্ন ব্যক্তি তাদের মতামত, বিচার, তাদের জ্ঞান এবং বিভিন্ন ধরনের ইনফরমেশন শেয়ার করে থাকে। এবং সেই ইনফরমেশন পৃথিবীর যে কোনো ব্যক্তির কাছে খুব সহজেই পৌঁছে দেওয়া যায়।

এক ব্যক্তি সাথে বিভিন্ন ব্যক্তির যোগাযোগ বা সংযোগ তৈরি করাই হলো টুইটার এর কাজ।

টুইটার কে আবিষ্কার করেন?

২০০৬ সালের মার্চ মাসে জ্যাক ডরসি, নোয়াহ গ্লাস, বিজ স্টোন এবং ইভান উইলিয়ামস, এই চার ব্যক্তি মিলে টুইটার প্রতিষ্ঠা করেন।

টুইটার কিভাবে চালায়?

টুইটার চালানোর জন্য আপনাকে প্রথমে একাউন্ট বানাতে হবে। একাউন্ট বাড়ানোর পর আপনার পছন্দের ক্যাটাগরির বেছে নিয়ে আপনি বিভিন্ন ইনফর্মেশন অ্যাক্সেস করতে পারবেন। এছাড়া বিভিন্ন ব্যক্তিদের সাথে যোগাযোগ করে তাদের সাথে কথাবার্তা বলতে পারবেন। তাই চলুন টুইটার অ্যাকাউন্ট কিভাবে বানাতে হয় সেটা জেনে নেওয়া যাক।

টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম

টুইটার একাউন্ট খোলার জন্য আপনাকে প্রথমে মোবাইলের ব্রাউজার থেকে twitter.com এ যেতে হবে বা গুগল প্লে স্টোর থেকে টুইটার অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে হবে।

এরপর অ্যাপ্লিকেশনটি ডাউনলোড করে খুলে নিয়ে বা ওয়েব সাইটে যাওয়ার পর get started নামক একটি অপশন দেখতে পাবেন। নতুন অ্যাকাউন্ট একাউন্ট খোলার জন্য আপনি এই অপশনটিতে ক্লিক করুন।

এরপর মোবাইল নাম্বার দিয়ে নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এবার সাইন আপ অপশনে ক্লিক করা মাত্র আপনার মোবাইল নাম্বারে একটি ওটিপি যাবে। ওটিপির ঘরে ওটিপি দিয়ে, পুনরায় নেক্সট বাটন প্রেস করুন।

এখন টুইটার অ্যাকাউন্টের জন্য পাসওয়ার্ড নির্বাচন করে, নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

এরপর আপনার পছন্দের ক্যাটাগরির বেছে নিয়ে শেষবারের জন্য নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

নেক্সট বাটনে ক্লিক করা মাত্র আপনার অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে যাবে। এরপর আপনি প্রোফাইল পিকচার দিয়ে এবং আপনার বেশি ডিটেলস দিয়ে একাউন্ট রেডি করে নিন।

এখন আপনি যে কোন সময় টুইটার ওয়েবসাইট থেকে বা টুইটার মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন থেকে, আপনার টুইটার আইডি এবং পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে টুইটার ব্যবহার করতে পারবেন।

টুইটার কিভাবে ব্যবহার করতে হয়?

আশা করছি উপরের ইনফর্মেশন থেকে টুইটার একাউন্ট কিভাবে বানাতে হয় এই সম্পর্কে বুঝতে পেরেছেন। এখন আমরা টুইটার কিভাবে ব্যবহার করে – এই সম্পর্কে জেনে নেব।

টুইটার কিভাবে ব্যবহার করতে হয়

মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন থেকে টুইটার খোলার পর আপনি সাধারণত 5 টি অপশন দেখতে পাবেন। এই অপশনগুলির কি কাজ, সেটি নিচে বিস্তারিত দেওয়া হল।

1. Home

হোম হলো টুইটারের একদম প্রথম অপশন। আপনি যে সকল ব্যক্তিদের ফলো করেছেন সে সমস্ত ব্যক্তিরা টুইটারে কি টুইট করেছে, এই সমস্ত বিষয়গুলি আপনি হোম অপশনের মাধ্যমে দেখতে পাবেন।

2. Search

আপনি অন্য কোন ব্যক্তি টুইটার একাউন্ট বা কারো টুইট দেখার জন্য সার্চ অপশন ব্যবহার করে সেই বিষয়টি খুঁজতে পারেন।

3. Notification Bell

এখানে আপনার বিভিন্ন ধরনের নোটিফিকেশন আসবে। যদি আপনি কাউকে ফলো করেন, যদি আপনাকে কেউ ফলো করে, কেউ যদি টুইট বা রিটুইট করে থাকে।

4. Message request

যদি আপনাকে কেউ মেসেজ করে থাকে তাহলে আপনি এই অপশন থেকে দেখতে পারবেন।

5. Tweet Button

যদি আপনি টুইটারের মাধ্যমে আপনি, tweet করতে চান তাহলে এই অপশনটি আপনার কাজে আসবে। এই অপশনের মাধ্যমে আপনি যেকোন বিষয়ে টুইট করতে পারবেন।

টুইটার কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?

২০০৬ সালের মার্চ মাসে টুইটার প্রতিষ্ঠিত হয়।

টুইটার এর অপর নাম কি?

টুইটারে বিভিন্ন ধরনের short কনটেন্ট বা tweet লিখে শেয়ার করা হয়। এইজন্য টুইটারের অপর নাম হলো মাইক্রোব্লগ।

সবথেকে বেশি টুইটার ফলোয়ার কার আছে?

নাম একাউন্ট ফলোয়ার
Barack Obama @BarackObama 131,4M
Justin Bieber @justinbieber 114,4M
Katy Perry @katyperry 108,9M
Rihanna @rihanna 106,2M
Cristiano Ronaldo @Cristiano 99,4M
Elon Musk @elonmusk 91,8M
Taylor Swift @taylorswift13 90,3M
Lady Gaga @ladygaga 84,5M
Narendra Modi @narendramodi 78,2M

উপসংহার

আশা করি আজকের এই ইনফরমেশন থেকে টুইটার কাকে বলে, টুইটার একাউন্ট খোলার নিয়ম এবং টুইটার কে আবিষ্কার করেন এই সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন। যদি আপনার এখনো টুইটার একাউন্ট না থাকে তাহলে আপনি উপরে দেওয়া ইনফরমেশন গুলা একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট বানিয়ে নিতে পারেন। যার মাধ্যমে আপনি নিত্য দিন বিভিন্ন ধরনের নতুন নতুন ট্রেন্ডিং ইনফরমেশন পাবেন। ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment