জিএসটি কি | জিএসটি মানে কি | জি এস টি সুবিধা

জিএসটি কি – যেকোনো জিনিস বা সেবা খরিদ করার সময় অনেকবার জিএসটি কথাটি শুনতে পাওয়া যায়। তবে এই জিএসটি মানে কি, এটা অনেকেরই অজানা।

এই জন্য আজকের এই আর্টিকেল থেকে আমরা জিএসটি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। যেখান থেকে আপনি জিএসটি কি, জিএসটি মানে কি, জিএসটি ফুল ফর্ম এবং জি এস টি সুবিধা সম্পর্কে জানতে পারবেন। যদি আপনি এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পেতে চান তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি পড়তে পারেন।

জিএসটি কি? (GST)

পণ্যসামগ্রী এবং পরিষেবার ওপর অপ্রত্যক্ষভাবে যে ট্যাক্স বসে সেটাই হলো GST।

উৎপাদন ও সরবরাহের ওপর প্রতিটি রাজ্যের আলাদা আলাদা কর ব্যবস্থার ফলে ভারতীয় অর্থনীতিতে যে বিরূপ প্রভাব পড়েছিল তা বন্ধ করতে এবং জটিল ট্যাক্স ব্যবস্থাকে সরল করতেই জিএসটি ব্যবস্থার প্রচলন করা হয়।

কোনো গ্রাহককে, কোন পণ্য বা সার্ভিস ভোগ করার সময় বা কেনার সময়, সেই পণ্য ও সার্ভিসের প্রকৃত মূল্যের সাথে জিএসটি কর যুক্ত প্রদান করতে হয়।

এবং সেই কর, বিভিন্ন বিক্রেতাদের হাত দিয়ে সরকারের কাছে পৌঁছয়।

ভারতের এই করে GST নামে পরিচিত হলেও, অন্যান্য দেশে এটি Value Added Tax বা VAT নামেও পরিচিত।

জিএসটি মানে কি?

আগে বিভিন্ন ধরনের কর ধার্যের জন্য, নির্দিষ্ট কোন পণ্য ও সার্ভিসের ওপর বিভিন্ন ধরনের টেক্স ইনক্লুড করা হতো। এবং আলাদা আলাদাভাবে সেগুলিকে, দিতে হতো।

কিন্তু ভারত সরকার 2017 সালের পর থেকে নতুন একটি কর ধার্য করা শুরু করেন যার মধ্যে সকল ট্যাক্স অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এই কর টির নাম হল জিএসটি।

জিএসটি ফুল ফর্ম

জিএসটি ফুল ফর্ম হলো Goods and Services Tax। অর্থাৎ পণ্য এবং সেবার উপর ধার্য করা টেক্স।

যেটা নির্দিষ্ট পণ্য ও সেবা ভোগকারী ক্রেতাদের দিতে হয়। এবং বিক্রেতার মাধ্যমে সেটি সরকারের কাছে পৌঁছয়।

জিএসটি কাদের দিতে হয়?

  1. যেকোনো ব্যক্তি যার বছরে ২০ লক্ষ বা তার বেশি অর্থের লেনদেন হয় তাকে সংশ্লিষ্ট রাজ্যকে জিএসটি দিতে হবে।
  2. অন্য রাজ্যের সঙ্গে লেনদেন করলে সেক্ষেত্রে জিএসটি লাগবে (তা ২০ লক্ষের কম বা বেশি যত টাকারই হোক না কেন)।
  3. এছাড়াও অনলাইন জিনিসপত্র কেনাবেচা করলে জিএসটি লাগবে।

জিএসটি কয় প্রকার ও কি কি?

ভারতে জিএসটি চার প্রকারের হয়।

১. CGST
২. SGST
৩. IGST
৪. UTGST

১. CGST

এর পুরো কথা হল Central Goods and Services Tax। এই অংশের আওতাভুক্ত অর্থ কেন্দ্র সরকার নিয়ন্ত্রণ করে।

২. SGST

এর পুরো কথা হল State Goods and Services Tax। এই অংশের আওতাভুক্ত অর্থ রাজ্য সরকার নিয়ন্ত্রণ করে।

৩. IGST

এর পুরো কথা হলো Integrated Goods and Services Tax। এই অংশে আওতাভুক্ত অর্থ রাজ্য সরকার ও কেন্দ্র সরকার, উভয়কেই প্রদান করতে হয়।

৪. UTGST

ভারতের কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল গুলিকে এই স্তরে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এর পুরো কথা হল Union Territory Goods and Services Tax।

জিএসটি কবে চালু হয়?

ভারতে, ২০১৭ সালের পয়লা জুলাই থেকে জিএসটি কর নেওয়া চালু করা হয়।

জি এস টি সুবিধা

  • এটি একটি সহজবোধ্য কর কাঠামো
  • এটিতে কোন লুকানো কর থাকেনা
  • খুচরা বিক্রেতাদের জন্য অতিরিক্ত কর লাগেনা তাই ব্যবসা করার খরচ কম হবে
  • আগে ভ্যাট এবং সার্ভিস ট্যাক্স ছিল, যার প্রত্যেকটির নিজস্ব রিটার্ন এবং কমপ্লায়েন্স ছিল, জিএসটি -র অধীনে একটি মাত্র রিটার্ন দাখিল করতে হয়।
  • জিএসটি এর সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া অনলাইনে করা হয় এবং এটি খুবই সহজ।

উপসংহার

আশা করি আজকের এই আর্টিকেল থেকে জিএসটি কি, জিএসটি মানে কি, জিএসটি ফুল ফর্ম এবং জি এস টি সুবিধা সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। যদি জিএসটি সম্পর্কে বুঝতে এখনও কিছু অসুবিধা হয় তাহলে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন।

Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment