অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর নাম (৫টি Software)

কয়েকটি সফটওয়্যার এর নাম – অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার হল সেই সমস্ত সফটওয়্যার যেগুলি সিস্টেম সফটওয়্যার এর উপর ইন্সটল করে বিভিন্ন ধরনের নির্দিষ্ট কাজ করার উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা হয়।

আজকের এই আর্টিকেল থেকে আমরা কয়েকটি অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর নাম আপনাদের জানাবো। যেগুলি বর্তমানে, সব থেকে বেশি ব্যবহার করা হয় অর্থাৎ এই সকল সফটওয়্যার গুলি বর্তমান দিনের সব থেকে জনপ্রিয় অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার গুলির মধ্যে অন্তর্ভুক্ত।

তাই চলুন দেরি না করে অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর উদাহরণ বা নামগুলি জেনে নেওয়া যাক।

সূচিপত্র

Microsoft Office

মাইক্রোসফট অফিসার কম্পিউটারের মধ্যে ইন্সটল করা সব থেকে জনপ্রিয় সফটওয়্যার। এই সফটওয়্যার ছাড়া কম্পিউটারের অধিকাংশ অফিসিয়াল কাজ করা সম্ভব নয়।

মাইক্রোসফট অফিস হল মাইক্রোসফট কোম্পানি দ্বারা ডেভলপ করা একটি প্যাকেজ। এরমধ্যে microsoft word, microsoft excel, microsoft powerpoint, one drive এর মত সফটওয়্যার গুলি অন্তর্ভুক্ত করা আছে।

এই সকল সফটওয়্যার গুলি বিশেষ বিশেষ কাজের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

পার্সোনাল কাজ থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসায়িক কাজ পর্যন্ত microsoft office ব্যবহার করে করা হয়ে থাকে।

Google Chrome

যে কোন কম্পিউটারের মধ্যে ব্রাউজিং করার জন্য বা ইন্টারনেট জগতে প্রবেশ করার জন্য গুগল ক্রোম হলো সবথেকে জনপ্রিয় সফটওয়্যার।

এই সফটওয়্যারটি গুগুল দ্বারা ডেভেলপ করা হয়েছে। ইউজার ফ্রেন্ডলিভাবে ইন্টারনেট সাফারিং করার জন্য এই সফটওয়্যারটি বেশিরভাগ কম্পিউটার ব্যবহারকারী, তাদের কম্পিউটারে ইন্সটল করে রাখে।

এই সফটওয়্যারটির মাধ্যমে আপনি ইন্টারনেটে প্রবেশ করে যেকোনো ধরনের ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন এছাড়া সেই সমস্ত ওয়েবসাইট থেকে বিভিন্ন ধরনের মুভি ডাউনলোড, বই পড়া, ব্লগিং করা, ভিডিও দেখা ইত্যাদি যে কোন কাজ করতে পারেন।

Google drive

যেকোনো ধরনের ডাটা ক্লাউড স্টোরেজে সেভ করে রাখার জন্য গুগল ড্রাইভ সফটওয়্যার টি অন্যতম। এই সফটওয়্যারটিও গুগল দ্বারা ডেভলপ করা হয়েছে।

এটিও জেনে নিন -  হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার এর মধ্যে পার্থক্য

বিভিন্ন ধরনের ছবি, অডিও, ভিডিও, ডকুমেন্ট ইত্যাদি জিনিস গুগল ড্রাইভ এর মধ্যে ফাইল এবং ফোল্ডার বানিয়ে ক্লাউডলি স্টোর করে রাখা যায়। এবং যে কোন সময় যে কোন ডিভাইস থেকে ইমেইল একাউন্টের মাধ্যমে নির্দিষ্ট ড্রাইভে লগইন করে সেই জিনিসগুলি এক্সেস করা যায়।

তবে এই অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার টি এন্ড্রয়েড মোবাইল ব্যবহারকারীদের জন্য সবথেকে বেশি কাজে আসে।

যদি আপনি ডেস্কটপের মধ্যে google ড্রাইভ ব্যবহার করতে চান তাহলে গুগল ক্রোম খুলে নিয়ে সেখানে গুগল ড্রাইভ লিখে একাউন্ট বানাতে পারেন।

Photoshop

বিভিন্ন ধরনের ফটো এডিট করার জন্য এই সফটওয়্যারটি সবথেকে বেশি জনপ্রিয়। এই অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যারটি কম্পিউটারের মধ্যে ইন্সটল করে যে কোন ফরমেটে এবং যে কোন স্টাইলে যে কোন ফটো এডিট করা যায়।

যে কোন অনুষ্ঠানের বাড়ির ফটো এডিট করার জন্য এই সফটওয়্যারটি বিশেষ কাজে আসে। ইউজার ফ্রেন্ডলি ডিজাইন এবং অসংখ্য ফিচার্সের জন্য এই সফটওয়্যারটি সবথেকে বেশি জনপ্রিয়।

Skype

কম্পিউটারের মাধ্যমে ভিডিও কলিং করার জন্য স্কাইপ সফটওয়্যারটি অন্যতম। এই সফটওয়্যারটি কম্পিউটারের মধ্যে ইনস্টল করে আপনি যেকোনো ব্যক্তির সাথে ইন্টারনেটের মাধ্যমে ভিডিও কল করতে পারেন। যদি আপনিও ভিডিও কল করতে আগ্রহী হন তাহলে আজই এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করতে পারেন।

VLC player

কম্পিউটারের মধ্যে বিভিন্ন ধরনের সিনেমা এবং ভিডিও গান চালানোর জন্য ভিএলসি প্লেয়ার অন্যতম। তবে এই প্লেয়ারটির মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের mp3 গানও শোনা যায়।

ভিএলসি প্লেয়ার এর মধ্যে যেকোনো ফরমেটের যেকোনো ভিডিও খুব সহজে চালানো যায়। যদি আপনি কম্পিউটারের মাধ্যমে সিনেমা বা ভিডিও গান দেখতে ভালোবাসেন তাহলে এই সফটওয়্যারটি আপনার কাজে আসবে।

সর্বশেষে,

আশা করছি আজকের এই আর্টিকেলটি থেকে অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার এর উদাহরণ বা নামগুলি পেয়ে গেছেন। এখানে যে সকল অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার গুলির নাম দেওয়া হয়েছে এগুলি প্রত্যেকটি কাজের সফটওয়্যার। যদি এখানে দেওয়া সফটওয়্যার গুলি আপনার কম্পিউটারে ইন্সটল করে নেন তাহলে কম্পিউটারের মাধ্যমে করা আপনার দৈনন্দিন কাজ আরো সহজ হয়ে যাবে। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন।

এটিও জেনে নিন -  সিস্টেম সফটওয়্যার এর নাম (System Software)
Sanju

আমি সঞ্জু রাউত। আমার বাড়ি কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ। আমি অন্যকে ইনফরমেশন দিয়ে সাহায্য করতে ভালোবাসি। তাই আমি এই ব্লগটি ওপেন করি, যার দ্বারা আমার সখ এবং অন্যকে সাহায্য দুটোই সম্ভব হয়।

Leave a Comment